শেষের পরে শুরু ! একান্ত আড্ডায় নন্দিতা রায়

বেলাশুরু নিয়ে নন্দিতা রায়

ইনডোজের ব্যানারে মনোজদের অদ্ভুত বাড়ি নিয়ে পুজোর মরসুম গেল বেশ জমাটি! এবার চমক পরিচালকের চেয়ার থেকে। শিবপ্রসাদনন্দিতা জুটির পরবর্তী ছবি বেলাশুরুর ফার্স্ট লুক রিলিজ হয়ে গেল। ছবির নাম বেলাশুরু। বেলাশেষের লংলাস্টিং আমেজে এখোনো বুঁদ বাঙালি। তারপর আবার কেবল নামের রঙমেলান্তি-ই নয়, সেম কাস্ট নিয়ে আবার বাঙালির মুখোমুখি ডিরেক্টর জুটি। কানাঘুষো শোনা যাচ্ছিল সৌমিত্র চট্ট্যোপাধ্যায়স্বাতিলেখা সেনগুপ্তের ক্লাসিক জুটিকে নিয়ে এবার বেলাশেষের শিক্যুয়ালে গল্পের জাল বুনতে রেডি শিবপ্রসাদ-নন্দিতা। তবে সেই সম্ভবনার কথা এক ফুঁয়ে উড়িয়ে দিলেন ডিরেক্টর ডুয়ো। যদিও কাস্ট একই, কিন্তু একেবারেই নতুন গল্পের আবহ নিয়ে আসতে চলেছে বেলাশুরু। শুটিং শুরু তিরিশে নভেম্বর। ছবির গল্পে আবারো ইউনিক সম্পর্কের সমিকরণ। সৌমিত্র-স্বাতিলেখা ছাড়াও এই ছবিতে দেখা যাবে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, অপরাজিতা আঢ্য, মনামি ঘোষ, অনিন্দ্য চট্ট্যোপাধ্যায়, শংকর চক্রবর্তী, খরাজ মুখোপাধ্যায় ছাড়াও আরো অনেককে। বেলাশুরুর ফার্স্টলুক নিয়ে জল্পনার শেষ নেই, অনেক কিউরিওসিটি আর আবেগ ঝোলায় নিয়ে আমরা ফোনে ধরেছিলাম ছবির পরিচালিকা নন্দিতা রায়কে। ভীষণ ব্যস্ত শিডিউলের মধ্যেও জমে উঠেছিল ছোট্ট আড্ডায় মোড়া দারুণ সব মুহূর্ত।

প্রশ্ন – বেলাশেষের পর বেলাশুরু এর পিছনে কোনো বিশেষ কারণ?

বেলাশেষের পরিবারটা এতই জনপ্রিয় হয়ছিল যে ওদের দর্শকের কাছে ফিরিয়ে আনতে ইচ্ছা হলো। একেবারেই নতুন রূপে, নতুন গল্পের মধ্যে দিয়ে।

বেলাশুরু প্রশ্ন – বেলাশেষের চুরান্ত সাফল্যের পর বেলাশুরু নিয়ে আপনার প্রত্যাশা কেমন?

বেলাশুরু প্রেমের গল্প, সম্পর্কের গল্প, বন্ধনের গল্প। দর্শকের কাছে সেরাটুকু তুলে দেবার চেষ্টা থাকবে। বরাবরই থাকে। এবার বাদবাকি টুকু দর্শকের হাতে।

বেলাশুরুপ্রশ্ন – মানুষের গল্প, জীবনযাপনের গল্প, বিশেষ করে বলতে গেলে সম্পর্কের গল্প। এই ছবি এই ক্ষেত্রে কতটা ইউনিক?

প্রেমের গল্প সবসময়ই ইউনিক। এই ছবিতে কী ভাবে প্রেম আর সম্পর্ককে বিশ্লেষণ করা হয়েছে, সেটাই আসল দেখার বিষয়। নিশ্চয়ই তার জন্য অপেক্ষা করতে হবে! (হাসি)

প্রশ্ন – বেলাশুরুর ফার্স্ট লুক রিলিজ করল। যদি দর্শকের কাছে কয়েক কথায় বেলাশুরুকে দর্শকের কাছে জানাতে হয়, কী বলবেন?

আশা রাখছি যে ভাবে আমাদের প্রত্যেকটা ছবি দর্শক ভালবাসে, গ্রহণ করে, এই ছবিটিও করবে। আর গল্পের বিষয়ে এখন এর বেশী আর কিচ্ছু না। (আবার হাসি)

ফোনের এপারে – আত্মদীপ