এইবছরের হাইভোল্টেজ ১০ টি আপকামিং সিনেমা, শুধুমাত্র আপনাদের জন্য!

সূচনা পর্ব থেকেই তাঁর আভাস দিতে শুরু করে দিয়েছেন বেশ কিছু নামীদামী পরিচালক। সময়ের সাথে তারা হাজির হচ্ছেন এক লম্বা লিস্ট হাতে নিয়ে। চলুন একনজরে দেখে নেওয়া যাক সেইসব সিনেমা সূচি।

বাংলা ছবির ইতিহাসে ২০১৬ সালটা টার্নিং পয়েন্টের চেয়ে কোনো অংশেই কম ছিলো না। চলতি বছরটাও বেশ সাসপেন্সিভ সিনেমা প্রেমীদের কাছে। সূচনা পর্ব থেকেই তাঁর আভাস দিতে শুরু করে দিয়েছেন বেশ কিছু নামীদামী পরিচালক। সময়ের সাথে তারা হাজির হচ্ছেন এক লম্বা লিস্ট হাতে নিয়ে।

চলুন একনজরে দেখে নেওয়া যাক সেইসব সিনেমা সূচি:-

1. চ্যাম্প:- লিস্টের প্রথম জায়গাটা ইতিমধ্যে দখল করে ফেলেছে রাজ চক্রবর্তীর “চ্যাম্প”। ইন্ডাস্ট্রিতে দেব-রুক্মিনী’র আবির্ভাবের গল্পটা এক আকস্মিক ট্র্যাজিডির সন্ধান দিতে চলেছে ছবিটিতে।

2. পোস্ত :- “প্রাক্তন” এর অভাবনীয় সাফল্যের পর নতুন এক গল্প নিয়ে আসছেন পরিচালক শিবপ্রসাদ মূখার্জী এবং নন্দিতা রায়। “পোস্ত” নামের মতোই গল্পটাও একটা টেস্টি কিছুর ইঙ্গিত দিচ্ছে দর্শকদের।

3. বস ২ :- দেব বনাম জিৎ গল্পটা আজকের নয়। পুরোনো কাহিনীটাকে আরোও এগিয়ে নিয়ে যেতে মুক্তির অপেক্ষায় দিন গুনছে জিৎ অভিনিত “বস-2″।

4.ওয়ান :- বিরসা দাশগুপ্ত মানেই নতুন কিছুর অপেক্ষায় থাকা নিতান্তই বাহুল্য নয়। প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জী এবং যশ্ দাশগুপ্ত মিলিয়ে একটা অদ্বিতীয় সাসপেন্স নিয়ে আসতে চলেছে ছবিটি।

5. দুর্গা সহায় :- “চ্যাম্প” এর পরই টলিপাড়ার একটা বড়ো মাপের জায়গা দখল করতে একেবারেই প্রস্তুত অরিন্দম শীলের “দুর্গা সহায়”। সোহিনী সরকার, অনির্বান ভট্টাচার্য এবং তনুশ্রী চক্রবর্তী’কে দেখা যাবে ছবিটির মুখ্য চরিত্রে।

6.বিসর্জন :- অন্য পরিচালকদের সাথে তাল মিলিয়ে নতুন কিছু নিয়ে আসার মানসিকতায় ধরা দিলেন পরিচালক কৌশিক গাঙ্গুলী। তাঁর আপকামিং ছবি “বিসর্জন” এর কাহিনীতে এক নয়া চরিত্রের সাক্ষী হতে চলেছেন আবীর চ্যাটার্জী।

7. মেঘনাদবধ রহস্য :- নবাগত অভিনেতাদের ভিড়ে একসময় হটাৎ করে হারিয়ে গেছিলেন সব্যসাচী চক্রবর্তী। সময়ের ব্যবধান মিটিয়ে “মেঘনাদবধ রহস্য” ছবির প্রেক্ষাপটে এক ঐতিহাসিক চরিত্র নিয়ে ফিরেছেন এই কিংবদন্তী অভিনেতা।

8.ধুমকেতু :- দেব-শুভশ্রী জুটির পুনরাবির্ভাব নিয়ে এক বিশ্লেষনাত্মক মাদকতা টলিপাড়া জুড়ে। পরিচালক কৌশিক গাঙ্গুলী’র অবদানে আবার পুরাতন স্মৃতিকে নাড়া দিতে চলেছে অনবদ্য ছবি “ধুমকেতু”।

9.কাকাবাবু :- গত বছরের অনন্য ছবি “প্রাক্তন” নতুন ভাবে চিনতে শিখিয়েছিলো অভিনেতা প্রসেনজিৎ চ্যাটার্জী’কে। এবারও গল্পটা প্রায় এক। নিজের অভিনয় দক্ষতা দিয়ে সবাইকে ছাপিয়ে দিতে মরিয়া তাঁর নয়া গোয়েন্দা চরিত্র।

10.আমাজন অভিযান :- ছবিটি নিয়ে যতটুকুই বলা যায় ততটাই কম। এবছরের সেরা ছবির দৌড়ে সবচেয়ে এগিয়ে কমলেশ্বর মূখার্জী’র “আমাজন অভিযান”। ছবিটির কাহিনী থেকে শুরু করে দুঃসাহসিক সিকুয়েন্স, সব মিলিয়ে ছবিটির আদর্শ চরিত্রে ছেয়ে গেছেন অভিনেতা দেব। আমাজনের গভীর অরন্যের ঝুকি কাটিয়ে বাংলা ছবির নতুন ইতিহাসের দাবিদার বিভূতিভূষণ বন্দোপাধ্যায়ের অনবদ্য সৃষ্টি।