ধূমকেতুর আবির্ভাব কি তাহলে শুধু সময়ের অপেক্ষা !

মুক্তির

কথায় বলে সঠিক সময়ের আগে নাকি কিছুই হয়না,তা সে কেউ যতই চেষ্টা করুক না কেন ? তবে হঠাৎ করে এইরকম একটা কথার মানেও যে আপনাদের বোধগম্য হবে না,সেটাও স্বাভাবিক । তাহলে চলুননা, আপনাদেরকে বরং সেই ব্যাপারটার একটু গভীরে নিয়ে যাই। গত ২০১৬ সালে টলিকাতার প্রথমসারির ভালো সিনেমাগুলির লিস্টে অন্যতম ছিল পরিচালক কৌশিক গাঙ্গুলী পরিচালিত ও দেব এন্টারটেইনমেন্ট ভেঞ্চার্সের সহ প্রযোজিত প্রথম ছবি ”ধূমকেতু“।ছবিটি দেবের সাথে কো-প্রোডিউস করেছিলেন বাংলার আরেক প্রযোজক রানা সরকার।তবে ছবির শুটিং শেষ হয়ে গেলেও কোন বিশেষ কারণবশত ছবির ডাবিংয়ের কাজ অসম্পূর্ণ থেকে যায় এবং পরে জানা যায় দেবের সাথে রানা সরকারের কিছু ব্যাক্তিগত সমস্যার কারণে তা আর সম্পূর্ন হয়ে ওঠেনি।তারপর ঠিক এইভাবেই ছবি মুক্তির অপেক্ষায় কেটে যায় আরও দুই বছর।”ধূমকেতু” ছবিটিতে এই প্রথমবার দেবকে দেখা যেত একেবারে এক অন্য অবতারে, অন্যদিকে কৌশিক গাঙ্গুলীর পরিচালনার একটি সুন্দর গল্প সাথে দেব-শুভশ্রী জুটির এক অনবদ্য কেমিস্ট্রি সবকিছুই যেন দর্শকদের প্রত্যাশার সাথে সাথে ঘন কুয়াশায় হারিয়ে যেতে বসেছিল। বাংলার দর্শক যখন এই ছবি মুক্তির আশা প্রায় ছেড়েই দিয়েছিলেন,ঠিক সেই সময়েই একটি উড়ে আসা খবরে আবারও একটা আন্দাজ পাওয়া গেল এই ছবি মুক্তির।

ভায়াকম 18 মোশন পিকচার্স হল বলিউডের অন্যতম প্রোডাকশন হাউস,আর তাদেরই এক নয়া উদ্যোগে আজ আশাবাদী গোটা দর্শকমহল।কারণ তাদের সম্প্রতি লক্ষ্য বলিউড তথা সমস্ত আলাদা আলাদা রিজিয়নের না রিলিজ হওয়া ছবি গুলিকে প্রেক্ষাগৃহে তুলে আনা ।সেই উদ্যোগের ফলস্বরূপ ইতিমধ্যেই মুক্তি পেয়ে গেছে স্যাফ আলি খান অভিনীত ছবি “বাজার”। ভায়াকম 18 মোশন পিকচার্স’এর অফিসিয়াল পেজ থেকে আরও জানা গেছে হিন্দি সিনেমার পাশাপাশি বাংলা,তামিল,তেলেগু,মালায়ালাম সবমিলিয়ে আরও ১৭টি ছবি রিজিয়ান ওয়াইস রিলিজ করাবেন তারা।আর সেই লিস্টেরই প্রথম বাংলা ছবি “ধূমকেতু”।তাছাড়াও ভায়াকম 18 মোশন পিকচার্স প্রযোজিত সব ছবির ফিলমোগ্রাফিই প্রমান করে তাদের প্রতিটি ছবির কন্টেন্টের ক্ষমতা,সুতরাং ধূমকেতুর ক্ষেত্রেও যে তার অত্যুক্তি হবে না সেটাই স্বাভাবিক। তাহলে আর কি ,এইবার তবে অপেক্ষা শুধু ছবি মুক্তির।

Source – Viacom18