এমন বন্ধু আর কে আছে !

অনিল

জানলা দিয়ে সোনার রোদের আলো,
যায় যে ধুয়ে মলিনতার কালো
দরজা খুলে ফুলের হাসি দেখতে আমি পাই
প্রতিদিন দেখতে আমি পাই
এমন আমি ঘর বেঁধেছি আহা রে যার ঠিকানা নাই
স্বপনের সিঁড়ি দিয়ে যেখানে পৌঁছে আমি যাই।

উত্তম সূর্যালোকের মধ্যেও নিজের আপনভোলা মন,পায়েস খাওয়া মুখের হাসি, অতলস্পর্শী চোখ, সুর করে কথা বলার স্টাইলে দর্শকের ভালোবাসার মানুষ অনিল চট্টোপাধ্যায়। অনেক হিট ছবির হিরো হয়েও উত্তমকুমারের ইমেজটা ছুঁতে পারলেন না কেন? বলেছিলেন, ‘সেটা আমাদের অপারগতা। উত্তম তো আমাদের হাত দিয়ে আটকে রাখেনি। হলের সামনে দাঁড়িয়ে বলেনি, অনিলের ছবি দেখবেন না। সেই সময়ে আমি অনেক অফ বিট ছবি করেছিলাম যেগুলো সময়ের চেয়ে এগিয়ে ছিল। মেঘে ঢাকা তারা, আহ্বান, অগ্নিসংস্কার, আগুন, মরুতীর্থ হিংলাজ এগুলো সো-কলড উত্তম-সুচিত্রার গল্পের অনেক বাইরের গল্প।’

অনিল চট্টোপাধ্যায়অনিল চট্টোপাধ্যায নায়কের চেয়ে চরিত্রাভিনয়েই দক্ষতা বেশি দেখিয়েছেন। সেখানে তাঁর অভিনয় বহুমাত্রিক। কাঞ্চনজঙ্ঘার চুলবুলে প্লেবয়, মহানগরের মধ্যবিত্ত গৃহস্থ, কোমল গান্ধারের অগতানুগতিক দুরন্ত প্রেমিক, বনপলাশির খামখেয়ালি ডাক্তার, মেঘে ঢাকা তারার লড়াকু শিল্পী ও স্নেহশীল দাদা, পোস্টমাস্টারে পোস্টমাস্টার, দীপ জ্বেলে যাই র মাতাল পাগল… তারই সাক্ষ্য বহন করে। অবশ্য এর বাইরেও অসংখ্য চরিত্র আছে।

উত্তম নায়ক বেশী করলেও উত্তম – হেমন্ত জুটির বিচ্ছেদ হয় মাঝে অনেকদিন। উত্তমের লিপে মান্না দে, শ্যামল মিত্ররা চলে আসেন। কিন্তু অনিলের লিপে হেমন্ত গানে কোনো বিচ্ছেদ হয়নি। হেমন্ত মুখোপাধ্যায়ের প্রচুর জনপ্রিয় সেরা সেরা প্লে ব্যাক অনিল চট্টোপাধ্যায়ের লিপে।

অনিল চট্টোপাধ্যায়যেমন …
“আজও হৃদয় আমার পথ চেয়ে দিন গোনে”

‘তোমার ভুবনে মাগো এত পাপ’

‘লাজবতী নূপুরের রিনি’

‘ এসেছি আমি এসেছি
সুরের আসর থেকে মন নিয়ে এসেছি গো
ফুলের বাসরঘরে বন্ধু’

‘পথের ক্লান্তি ভুলে’

‘এমন আমি ঘর বেঁধেছি’।

হেমন্তঅনিল জুটি দুরন্ত সফল জুটি। কিন্তু উত্তম – হেমন্ত জুটি চর্চা হয় শুধু। প্রযোজকের অনুরোধে হয়েছেন ‘হাই হিল‘ ছবির নায়ক। আবার নায়ক হয়ে ‘মুক্তিস্নান‘ এ কি অসাধারন অভিনয়। ‘টুসী‘ ছবিতে বাড়ির বড়দার রোলে অনিলই নায়ক। কিছু মানুষের উপস্হিতি মনটাকে ভালো করে দেয়। অনিল চট্টোপাধ্যায় তেমন‌ই একজন।

শুভ জন্মদিন কমরেড অনিল চট্টোপাধ্যায়। উত্তম সূর্যালোকের মধ্যেও নিজের আপনভোলা মন,পায়েস খাওয়া মুখের হাসি, অতলস্পর্শী চোখ, সুর করে কথা বলার স্টাইলে দর্শকের ভালোবাসার মানুষ অনিল চট্টোপাধ্যায়

Written By – শুভদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়