কোথায় নীরবে আছেন দেবরাজ রায় ?

দেবরাজ

কলকাতা দূরদর্শনে আশির থেকে নব্বই দশক সন্ধ্যে সাতটার সংবাদ পড়া সংবাদ পাঠক ভদ্রলোকটির মতো অমন জামাই কেউ বা অমন ছেলে চেয়েছেন। তখন তো একটাই বাংলা চ্যানেল। সংবাদ সন্ধ্যে সাতটায়। আর সেখানে খবর পড়তেন যারা সব এক একজন লেজেন্ড। ছন্দা সেন, কমলিকা, তরুন চক্রবর্তী , প্রমুখ সাথে দেবরাজ রায়। যার গলার স্বর থেকে সৌম্যকান্তি ভদ্র চেহারা আইকন ছিল সবার কাছে। তবে শুরুটা করেছিলেন নায়ক রূপে। অসামান্য কণ্ঠস্বর । একসময়ের সুপুরুষ ও সুদর্শন নায়কদের একজন । ‘মর্জিনা আবদাল্লা‘ থেকে ‘কলকাতা ‘৭১‘ -এর মত ছবিতে তার অভিনয় মানুষকে মুগ্ধ করেছে । আকাশবাণীর বেতারশিল্পের পাশাপাশি টিভি নিউজ অ্যাংকর হিসেবেও সাফল্য পেয়েছেন । এমন এক অভিনেতা আজ একদম অন্তরালে।

দেবরাজের জন্ম ৯ ডিসেম্বর ১৯৫৪ । অভিনেতা দেবরাজ রায়…….. দীনেন গুপ্ত থেকে মৃণাল সেন হয়ে অঞ্জন চৌধুরী বিষ্ণু পালচৌধুরী প্রমুখের সঙ্গে যিনি কাজ করেছেন চলচ্চিত্র থেকে সিরিয়াল। প্রথম চলচ্চিত্রেই পান সত্যজিৎ রায়কে। ‘প্রতিদ্বন্দ্বী’ ছবি দেবরাজের অভিষেক ছবি। মৃণাল সেনের ‘কলকাতা ‘৭১’। ‘বাজে গো বীণা’ মান্না দের এই ক্লাসিকাল গান সর্বকালের সেরা গান যার লিপে তিনি দেবরাজ রায়। দেবরাজের লুক খুব পরিবর্তন হয়েছে। মর্জিনার প্রেমিক নব্য তরুন দেবরাজ। মিঠু মুখার্জ্জী জনপ্রিয় হন মর্জিনা করেই। আর তাতে তাকে যোগ্য সঙ্গত দেন আরেক নবাগতা অভিনেতা দেবরাজ রায়। দুজনার প্রেম দর্শক আজও মনে রেখেছে কূল কূলকূল কূলু বহেও যায় নিরবধি।

দুই পারে দুই তীরে একই নদী বহে ধীরে
তবুও দু’পাড় কাঁদে ।।
তোমারও আমার মাঝে তেমনি প্রেমের নদী।।

যদিও দেবরাজের আসল প্রেম, জীবন সঙ্গিনী স্ত্রী অভিনেত্রী তথা নব্বই দশকের নায়িকা অনুরাধা রায়। অনুরাধা যখন প্রথম ইন্ডাস্ট্রিতে আসেন তাকে সবাই বলত দেবরাজের বউ। কিন্তু নিজের সতন্ত্র আইডেন্টি তৈরী করে নেন ইন্দ্রজিৎ র বউ থেকে উৎসবের মেজো বউ হয়ে রাণী রাসমণি রাজেশ্বরী রূপে। বাংলা ছবি সিরিয়ালের গ্ল্যামার আইকন অনুরাধা রায়। দুজনেই সমান তালে বিনোদন জগতে কাজ করতেন। অনুরাধার কাজ যত বাড়তে লাগল দেবরাজের কাজ ইচ্ছে তত কমতে লাগল। তবে ফিনিক্স পাখির মতো তিনি জ্বলে উঠতেন মাঝেমধ্যেই। যেমন বিষ্ণু পাল চৌধুরীর ‘দেবদাসী’ মেগা সিরিয়াল। স্বস্তিকা মুখার্জ্জী নামভূমিকায় প্রায় নবাগতা নায়িকা। আর ভিলেন পুরীর মন্দিরের পুরোহিত নেতা হিসেবে দেবরাজ রায়। ধূর্ত ভিলেনের অভিনয় অনবদ্য করেন দেবরাজ। সঙ্গে সঙ্ঘমিত্রা ব্যানার্জ্জী।

দেবরাজের ফিল্মোগ্রাফিতে আছে অনেক ছবি মেজদিদি, ফেরারী ফৌজ, চৌধুরী পরিবার, তিল থেকে তাল, ভূত অদ্ভুত, শিবাজী , লাভ সার্কাস।এই ছবি গুলি একালের ছবি।পুরনো ছবি ‘কলকাতা ‘৭১’ এ টুনু চরিত্রে দেবরাজ বিখ্যাত হন। নতুন দিনের আলো ,কবি,গনদেবতা, সেদিন দুজনে,সরগম, দেবর, রক্ত নদীর ধারা ,নটী বিনোদিনী। নাটক থিয়েটারও করেছেন এককালে। এখন কেমন আছেন দেবরাজ রায়? অন্তরালে প্রায়। আর দেখা যায়না তাকে। স্ত্রী অনুরাধা রায় এখনও চলচ্চিত্র টেলিভিশনে জনপ্রিয় মুখ বৌদি থেকে ঠাকুমার চরিত্রে। যদিও বাস্তবে অনুরাধা এখনও সুন্দরী লাবন্যময়ী। দেবরাজ-রায় আজকাল খবরের বাইরে। বিনোদনের এখনকার ইন্ডাস্ট্রিও তার মানিয়ে নিতে অসুবিধে হয়, বদলেছে আগেকার টলিপাড়া।

দেবরাজ রায় আজও প্রথম প্রেমের ভালোবাসার নায়ক। ভালো থাকুন দেবরাজ রায়।