Home চেনার মাঝে অচেনা মিথ আছে সেলেব্রিটিরা রাজনীতি করেন মুখ দেখাতে ! বাবুল সেই মিথ ভেঙে...
দত্ত

গীতা দত্তের মেয়েবেলার গল্প !

গীতা রায়। গুরু দত্ত কে বিয়ে করার পর যার নাম হয় গীতা দত্ত। আজ বলব গীতা দত্ত র প্রথম জীবনের গল্প। প্রথম গানের গল্প। গীতা...
একই অঙ্গে এত রূপ 1965

হারানো ছবির গল্প !

পরিচালক হরিসাধন দাশগুপ্তর বাংলা ছবিতে অবদান একদম অনালোচিত। চলচ্চিত্রকার হিসেবে তাঁর সবচেয়ে আলোচিত ছবি সুচিত্রা - উত্তম অভিনীত 'কমললতা'। খুবই গুণী মানুষ। কিন্তু মেঘে...
Mohamed Aziz

“শেষ গান নয় আজ গেয়ে যাব জীবনের এই জয়গান” ..

মহঃ আজিজ। যেন বাংলার মহঃ রফি। আবার বোম্বেরও রফি কন্ঠী শিষ্য যেন তিনি ছিলেন। আশির দশকে বাংলা হিন্দি ছবির সুপারহিট গানের গায়ক যিনি। রফির...

মিথ আছে সেলেব্রিটিরা রাজনীতি করেন মুখ দেখাতে ! বাবুল সেই মিথ ভেঙে দিয়েছেন

ত্তরপাড়ার সুপ্রিয় বড়াল। গঙ্গায় বন্ধুদের সঙ্গে নৌকা পারাপার করত আর মনের আনন্দে নদীর হাওয়ায় পাল তুলে গলা ছেড়ে গান গাইত। লোকগীতি থেকে কিশোর কুমার। মনে পড়ে সেই ‘অমর প্রেম’ র নৌকায় রাজেশ খান্নাকে? “চিঙ্গারি কোই ভরকে”? কিশোর কুমারকে গুরু মেনে এই গান গুলোই নিজেকে নায়ক ভেবে গাইত সুপ্রিয়। ডাক নাম বাবুল। স্কুল কলেজের খাতায় তাঁর নাম সুপ্রিয় বড়াল। স্কুলে পড়াকালীন অল ইন্ডিয়া রেডিয়ো এবং দূরদর্শনে পারফর্ম করেন তিনি, সঞ্চালনাও। ১৯৮৫ সালে মাত্র ১৫ বছর বয়সে ‘দ্য মোস্ট এনরিচিং ট্যালেন্ট’ হিসেবে স্বীকৃত হন। বাবুলের বাবা শ্রী সুনীলচন্দ্র বড়াল। মা শ্রীমতী সুমিত্রা বড়াল। তাঁর পিতামহ ছিলেন বিখ্যাত এন.সি.বড়াল। বানিজ্য নিয়ে পড়ায় ক্যারিয়ারের শুরুতে কিছুদিন স্টান্ডার্ড চ্যাটার্ড ব্যাঙ্কে কাজ করেন। কিন্তু প্রাণে ছিল গান। তাই রিস্ক নিয়েই দেন মুম্বাই পাড়ি। মুম্বাইয়ে এক নতুন লড়াই শুরু।

একদিন এল ব্রেক। ১৯৯২ সালে মুম্বইতে পা রাখার পর, তাঁকে প্রথম সুযোগ দেন কল্যাণজী, পরবর্তীকালে বাবুল আশা ভোঁসলে এবং অমিতাভ বচ্চনের মতো মহাতারকাদের সঙ্গে আমেরিকা এবং কানাডা সহ বিভিন্ন দেশে লাইভ শো করেন। এরমধ্যে কিশোর কন্ঠী রূপে বাবুল বেশ জনপ্রিয় হন। ক্যাসেটের যুগ নতুন নাম হল বাবুল সুপ্রিয়। কিশোর কুমারের গানে কিশোর কন্ঠী হিসেবে বেরলো তাঁর বাংলা গানের ক্যাসেট। অনেক শ্রোতারাই ভাবত নতুন ছেলেটার টাইটেল কি? দুটোই তো নাম! বড়াল রয়ে গেল খাতায় কলমে। সে শুধু বাবুল সুপ্রিয়। এরপর এল ক্যারিয়ারের সবচেয়ে চমকপ্রদ ব্রেক। রাকেশ রোশন দিলেন তাঁকে সুবর্ন সুযোগ। হৃত্বিক রোশন অভিনীত “কহো না প্যার হ্যায়” সিনেমায় গান গেয়ে সারা ভারত সহ বিশ্বে বিখ্যাত হন বাবুল। হৃত্বিক ও এক ছবিতে সুপারস্টার বাবুলও এক ছবিতে স্টার গায়ক হয়ে যান। এছাড়া আরও জনপ্রিয় বলিউডে গান গেয়েছেন ‘পরি পরি হ্যায় এক পরি'(হাঙ্গামা), ‘হাম তুম'(হাম তুম), ‘চন্দা চমকে'(ফানা)। কে ফর কিশোর সুপার হিট টি.ভি শো সঞ্চালনা করেন। একসময় জি বাংলা ও জি টিভি সারেগামাপা য় সঞ্চালনা করেও ঘরেঘরে জনপ্রিয় হন বাবুল। তরুন মজুমদার বাবুলকে করেন তাঁর ছবির নায়ক। চাঁদের বাড়ি ছবিতে বাবুল অভিনয় করেন। শ্যুটিং র শুরুতে অনেকে সমালোচনা করে বলেছিল “বাবুল আবার কি এক্টিং করবে?” কিন্তু ঋতুপর্ণ ঘোষ বলেছিলেন “বাবুল পারবে ছবিতে নায়ক হতে। অবাক হয়নি একদমই। তনু বাবু ভুল চয়েস করেননি।” চাঁদের বাড়ি সুপারহিট হয়। এরপর উত্তম কুমার অভিনীত ‘ওগো বধূ সুন্দরী’ র রিমেক করেন বাবুল। নায়ক রূপে। ছবিটি সেভাবে না চললেও গান ছবির টাইটেল সং বাবুলের কন্ঠে বেশ মনোগ্রাহী হিট করে।

‘দেখি সলাজ হাসি, কাজল চাহনি
ওগো বনপলাশী, মোর মন মোহিনী
আমার হৃদয় সাগরে তুমি সোনার তরী
আমার ওগো বধূ সুন্দরী।

বাবুল হাজার ব্যস্ততাতে থাকলেও শরীর সচেতন তাই নায়ক হবার অনুপযুক্ত নন। সারাদিন হাজার ব্যস্ততার মধ্যে থাকলেও রাতে বাড়ি ফিরে ট্রেডমিলে ঘাম ঝরিয়ে দৌড়ে নেন। ডেডিকেশন সবেতেই যার। সম্প্রতি সৃজিত মুখার্জ্জীর ‘উমা‘ তে মনকাড়া চরিত্রে দেখা গেছে তাঁকে। বাবুল বোম্বেতে শুধু নয় বাংলা ছবি শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ থেকে কিশোর কুমার জুনিয়র সবেতেই প্লেব্যাক করেছেন। রয়েছে তাঁর একাধিক হিট রবীন্দ্রসঙ্গীত এলবাম। একাধারে তিনি জনপ্রিয় গায়ক। সেই সঙ্গে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীও। সঙ্গে আবার দলের স্টার প্রচারক। কিন্তু সে সবেরও উপরে তিনি একজন স্নেহশীল বাবা। পরিবারকে সময় দিতেও ভোলেন না তিনি।

রাজনৈতিক দিকেও একার জোরে বাংলায় সফল তিনি। গতবার লোকসভা নির্বাচনে তিনি জেতেন। তখন বিজেপির বাংলায় যা সিট ছিল তাঁর বহু বহু গুন সিটে এবছর লোকসভা নির্বাচনে জয়ী বিজেপি। এর অনেকটাই কৃতিত্ব বাবুলের। যখন একজন গায়ক কে প্রার্থী করা হয় তৃনমূল পার্টির স্বর্ণযুগে তখন বাবুল পারবেনা বলে সবাই উড়িয়ে দিয়েছিল। সেই বাবুলই জয়ী হয় আসানসোল থেকে। আর এবার তো কমলেকামিনী বাংলা। বাবুল কে নিয়ে আগে আসানসোলের মানুষ স্বপ্ন দেখেছিল এখন সারা বাংলা সহ সারা ভারত বাবুলকে তাঁদের স্বপ্নপূরণের দেবতা ভাবে। বাবুল তাঁর গানকেও এই নির্বাচনে কাজে লাগান, সমালোচিতও হন। গানের ভিডিওটিতে পদ্মফুল উড়িয়ে বাবুলকে গাইতে শোনা গেছে ‘ফুঁটবে এবার পদ্ম ফুল, বাংলা ছাড়ো তৃণমূল…এই তৃণমূল আর না, আর না, আর না। ’অর্থাৎ তৃণমূলের শাসনকালে এ রাজ্যে ঘটা ‘অন্যায়’গুলির জন্য ফের তাদেরকে ভোট দেওয়া উচিত নয় বলেই বাবুল তার গানের মধ্যে দিয়ে বার্তা দিয়েছেন। আর এরপরই শুরু হয়েছে বিতর্ক।

কিন্তু শেষ কথা বলেছে জনতা জর্নাদন…….মুনমুন সেনের মতো হেভিওয়েট প্রার্থীকে বিপুল ভোটে হারিয়ে তাই বাবুল সুপ্রিয় বিপুল ভোটে জয়ী সঙ্গে বাংলায় এতগুলো আসন বিজেপির। বাংলা বিধানসভা ভোটেও পালাবদল হবে কি? রংবদল হবে কি? তা নিয়ে এখন জল্পনা তুঙ্গে। একটা মিথ আছে সেলেব্রিটিরা রাজনীতি করেন মুখ দেখাতে। বাবুল সুপ্রিয় সেই মিথ ভেঙে দিয়েছেন। বাংলার নতুন রূপকার বাবুল সুপ্রিয়। ঋতুপর্ণ ঘোষ যাকে বলেছিলেন “বাবুলকে ছবির নায়ক করায় অবাক হয়নি!” শেষ বাবুলই আজ দেশনায়ক।

লেখক শুভদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়

MUST READ

১০০ দিনে কথনীয় ‘কন্ঠ’

একশো দিন একশোরও বেশী কন্ঠে উচ্চারিত আজ শিবপ্রসাদ-নন্দিতা জুটির 'কন্ঠ' ছবিটি। উইনডোজ প্রযোজিত 'কন্ঠ' ছবিটি একশো দিন পার করল।'কন্ঠ' ছবির অনুপ্রেরণা একজন ক্যান্সার রোগ...

“ঋতুর মা থেকে শিবুর মায়ের চরিত্রে অভিনয় করতে পেরে আমি ধন্য।” – অনসূয়া মজুমদার

'মহাপৃথিবী, 'তাহাদের কথা','সম্প্রদান','দেবাঞ্জলী','মুখার্জীদার বউ','গোত্র' ... এক বিশাল সফরের নায়িকা অভিনেত্রী অনসূয়া মজুমদার -এর মুখোমুখি। গুলগাল.কম কে অনসূয়া মজুমদার জানালেন তাঁর রিল টু রিয়েল লাইফের...

রজনীগন্ধা ঝরে গেলেন !

চলে গেলেন বিদ্যা সিনহা। যিনি আলোচনা প্রচারের বাইরে ছিলেন। বলিউড মানে শুধু বিদ্যা বালান নন। তাঁর আগেও সত্তর দশকে দমকা মুক্ত হাওয়ার মতো মধ্যবিত্তর...

পুজারিনীর এই মিমিক্রি না দেখলে কিন্তু মিস করবেন !

পোস্টমাস্টার থেকে বড় পর্দায় উঠে আসা পূজারিণী কিন্তু এখন অনেক পরিণত , হাতে রয়েছে অনেক গুলো ছবি সাথে কিছু ওয়েব এর কাজ । সদ্য...