সবার মুখে মুখে ঘুরছে এখন এই সিরিয়ালের নাম!

বাংলা টেলিভিশনের গতানুগতিক ধারায় শাশুড়ি-বৌমার কোন্দল অথবা একজনের একাধিক বিয়ের কনসেপ্ট এখন বেশ অচল।ইদানিং বাঙলী দর্শকের ড্রয়িংরুমে ধর্মীয় কাহিনী বা রূপকথা আশ্রিত গল্পের আধিক্যই বেশী। তবে সেখানেও আবার অতিরঞ্জিত চিত্রনাট্য, অতিরিক্ত গ্রাফিক্সের কাজের ফলে ধারাবাহিক গুলো হারিয়ে ফেলছে তাদের গুণগত মান। ঠিকএমনই পরিস্থিতিতে সীমিত পর্বেরবাঁধা ছকে একটি ভিন্নধর্মী গল্প ‘ভূমিকন্যা’ নিয়ে হাজির হচ্ছে স্টার জলসা। ভূমিকন্যা মূলত সাহিত্যিক রূপক সাহার ‘তরিতা পুরাণ’-এর গল্প অবলম্বনে নির্মিত।আর সমগ্র ভাবনাটিকে রুপায়নের মূলে অরিন্দম শীল। থ্রিলার ও অরিন্দম শীল দুটো শব্দই যেন সমার্থক হয়ে দাঁড়িয়েছে ইদানিং। দু ঘণ্টার স্বল্প পরিসরে অনেক কথাই অব্যক্ত থেকে যায় সিনেমায়, এবার সেই অব্যক্ত কথাই বাংলা ধারাবাহিকে তুলে ধরবেন ব্যোমকেশ পরিচালক।

ভূমিকন্যার নাম ভূমিকায় দেখা যাবে সোহিনী সরকারকে। তাঁর অভিনয়ের সূত্রপাতও বাংলা ছোটপর্দার হাত ধরে ২০০৮ সালে জি-বাংলায় ‘রাজপথ’ ধারাবাহিকের মাধ্যমে। এরপর ‘ওগো বধু সুন্দরী’, ‘অদ্বিতীয়া’র পর আবার ছোটপর্দায় ফিরছেন সোহিনী। এছাড়া এই সীমিত পর্বের ধারাবাহিকে দেখা যাবে চিরঞ্জিত চক্রবর্তী, কৌশিক সেন, অনির্বাণ ভট্টাচার্য, সুদিপ্তা চক্রবর্তী, রুপাঞ্জনা মৈত্র, অঙ্কিতা চক্রবর্তী প্রমুখ একঝাঁক টলি তারকাকে। বাংলা ধারাবাহিক হলেও বাজেট নেহাতই মন্দ নয়, প্রায় দশ কোটি বাজেটে চলতি বছরের ১৫ই জানুয়ারি থেকে শুরু হয়েছিলভূমিকন্যার শুটিং।

বিষয়বস্তুর প্রতি সৎ থাকতে আউটডোরের একটি বিশেষ অংশের শুটিং হয়েছে কম্বোডিয়ার আঙ্কোরভাটে। ভূমিকন্যায় তরিতা অর্থাৎ সোহিনীকে দেখা যাবে একজন সরীসৃপবিদের চরিত্রে। বিদেশে পড়াশোনার শেষে সে দেশে ফিরে আসে গ্রামের মানুষের জন্য কাজ করার উদ্দেশ্যে। নারী পাচার থেকে শুরু করে মহিলাদের প্রতি সামাজিক হেনস্থার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান তিনি। এজন্য তাঁকে মুখোমুখি হতে হয় মহেশ্বর (চিরঞ্জিত চক্রবর্তী) এবং চন্দ্রভানুর (কৌশিক সেন) সঙ্গে। তরিতার এই লড়াই-এ পরবর্তীকালে পাশে পায় অঙ্কুশকে (অনির্বাণ ভট্টাচার্য)। মনসামঙ্গল কাব্যের ন্যয় মনসার সঙ্গে চাঁদ সওদাগরের লড়াই এখানেও দেখা যাবে। চন্দ্রভানু-তরিতার লড়াই তারই প্রতিরুপ। পদ্মনাভ দাশগুপ্তের চিত্রনাট্য, বিক্রম ঘোষের সঙ্গীত নিয়ে রাত্রি  ন’টার স্লটে ৩০ শে জুলাই থেকে ভূমিকন্যা আসছে স্টার জলসায়।আশা করা যায় বাঁধাধরা একঘেয়েমি চিত্রনাট্য দেখতে দেখতে বিরক্ত হয়ে যাওয়া টেলিভিশন প্রেমীদের একঅন্য স্বাদ যোগাবে ‘ভূমিকন্যা’।