কেমন হলো ‘চরিত্রহীন’ ?

কেমন হলো 'চরিত্রহীন

কিছুদিন আগে হইচইতে রিলিজ হল চরিত্রহীন ওয়েব সিরিজ। সাহসী ট্রেলার দর্শকদের কাছে উৎসাহের সৃষ্টি করেছিল। শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের কাহিনী অবলম্বনে সিরিজটি কেমন হলো আলোচনা করা যাক।

যারা ‘চরিত্রহীন‘ পড়েছেন তারা হয়তো ঘটনাটা আগেই জানেন। পরিচালক দেবালয় ভট্টাচার্য সেটাকেই মর্ডান অ্যাডাপ্টাইজেশন করেছেন। ঘটনার শুরুতেই একটা খুনের দৃশ্য দেখানো হয়। তারপর কাহিনী এগোতে থাকে। পাঁচ ছটি চরিত্র যারা প্রত্যেকেই বেশ পাওয়ারফুল চরিত্র। হরিয়স যে অ্যাক্সিডেন্টে অসুস্থ এবং সে চায় স্ত্রী তাকে ছেড়ে দিয়ে অন্য সংসার করুক৷ কিন্তু স্ত্রী তাকে ভালোবাসে। এদিক উপেন যে তার স্ত্রী কিরনের পূর্ব প্রেমিক, সে ফিরে পেতে চায় প্রেমিকাকে আর এসবের মধ্যে ঢুকে পড়ে শতীশ। সে নিজের ফ্যামিলি থেকে বঞ্চিত। ভালোবাসা নিয়ে কনফিউজড একটা চরিত্র। শতীশের চরিত্রে সৌরভ দাস অতুলনীয় অভিনয় করেছেন। হরিয়স চরিত্রে স্বাভাবিক অভিনয় করেছেন গৌরব চ্যাটার্জিও। কিন্তু রামগোপাল ভার্মার সাথে কাজ করে আসা নয়না গাঙ্গুলি অনেক বোল্ড এবং সুন্দরী হলেও অভিনয়টা আরো ভালো করে করতে হবে।

কেমনসুর দিয়েছেন শুভ প্রামানিক। মোটামুটি উৎরে গিয়েছেন। গানগুলো যথেষ্ট ভালো। পরিচালক দেবালয় ভট্টাচার্যের পরিচালনাও ভালো। যদিও শুরুওটা থ্রিলার দিয়ে করলেও অকারণ যৌনতা এনে স্থুল করে দিয়েছেন। হরিয়স হঠাৎ কেন ভালো মানুষ হয়ে গেলেন এর কারণও স্পষ্ট ছিল না। গল্পের চিত্রনাট্য নিয়েও আরো সচেতন হওয়ার দরকার। সব মিলিয়ে আমরা দশে ৬ রেটিং দিলাম।

Written By – শোভন নস্কর