আসছে দুইবাংলার শর্টফিল্ম..

ভারত বাংলাদেশের যৌথ উদ্যোগে পূর্ণ দৈর্ঘ্যের ছবি তৈরি হলেও প্রথম বার যৌথ উদ্যোগে আসতে চলেছে স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবি। দুইবাংলা প্রযোজিত এইস্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবিতে দেখা যাবে এপার বাংলারঅভিনেত্রী সায়নী ঘোষকে। সাথে আছে ওপার বাংলার ‘লাল টিপ’, ‘জোনাকির আলো’র নায়ক মামনুন হাসান ইমন। ওপার বাংলার ছোট পর্দাতে বেশ জনপ্রিয় মুখ তিনি। একজন চিত্র নির্মাতার ভূমিকায় দেখা যাবে ‘কানামাছি’র নায়িকা সায়নী ঘোষকে। ছবিটির নাম ‘সিনেমার পর্দায় সব চরিত্র কাল্পনিক’। ৬০ মিনিটের এই ছবিতে ধরা দেবেচেনা ভালোবাসার গল্প। কিন্তু, একটু অন্য ঢঙে। পরিচালক কৃশ সোমক বেরা এখানে ভালোবাসাকে অন্য ভাবে ব্যক্ত করবেন তাঁর ছবিতে। প্রেম মানেই যে বিয়ে, সংসার, সন্তান- এই ধারণায় আঘাত হানতে চেয়েছেন পরিচালক। কিছু ভালোবাসা আছে যা অন্তর থেকে পূর্ণতা পায় কিন্তু বিয়ের চৌকাঠ পেরোয় না। অথচ সেই ভালোবাসা বিলীন হয়না কখনও, থেকে যায় মনের অন্তরে। এই ভাবনাকে সম্বল করেই এগিয়েছে ছবির চিত্রনাট্য। সদ্য উত্তর আমেরিকায় বঙ্গ সম্মেলনে সঞ্চালিকার দায়িত্ব সামলানোর পর আবার শুটিং জীবনে ফিরেছেন সায়নী ঘোষ। নতুন ছবির সেট থেকে নিজের সোশ্যাল মিডিয়াতে বেশ কিছু ছবি শেয়ার করেছেন ‘কানামাছি’র নায়িকা। ছবির প্রথম পর্বের শুটিং শেষ হয়েছে এপ্রিল মাসে। চলতিসপ্তাহে হাওড়ার একটি লোকেশনে শেষ হল দ্বিতীয় পর্বেরশুটিং। খুব শিগগিরিই ছবির পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ শেষ করার পরিকল্পনা আছে পরিচালকের। সম্ভবত চলতি বছরের পুজোতেই শর্ট ফিল্মটি মুক্তি পেতে চলেছে একটি ওয়েব চ্যানেলে। প্রযোজনার দায়িত্বে তপন রায় ও বনানী রায়। পূর্ণ দৈর্ঘ্যের ছবির পর স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবিতে দুই বাংলার মিলন বিশ্বের দরবারে বাংলা ছবির ব্যাপ্তিকে যে আরও প্রসারিত করল তা বলার অপেক্ষা রাখে না।