“দেবপ্রিয় চোখ দিয়ে কথা বলতে পারে!” – মনোজ মিশিগান।

বড় পর্দায় বেশ কয়েকটি সফল ছবির পর এবার প্রথমবার শর্ট ফিল্ম বানাতে চলেছেন পরিচালক মনোজ মিশিগান। সদ্যই মুক্তি পেয়েছে ছবির পোস্টার, ‘আই, রিবর্ন’। প্রযোজনাতে আছে বোম্বের দুইজন প্রোডিউসার গৌরাঙ্গ বুকসেলার ও অভিনব ভার্মা। এই ছবিতে মুখ্য চরিত্রে দেখা যাবে দেবপ্রিয় মুখার্জীকে। তাঁর ছবির জন্য দেবপ্রিয়কে বেছে নেওয়ার কারণ জানতে চাইলে পরিচালক জানান, –

“আমি একটা জিনিস লক্ষ্য করেছি দেবপ্রিয় চোখ দিয়ে কথা বলতে পারে। ওর চোখটা খুব ইন্টারেসটিং অ্যন্ড হি হ্যস অ্য ভেরি ভেরি ইন্টারেস্টিং ফেস। ঠিক এইরকম লুকের কাউকে খুঁজে ছিলাম”।

অন্যদিকে “আমি জয় চ্যাটার্জি”র পরিচালকের কাজ খুবই পছন্দ দেবপ্রিয়ের, জানালেন, “মনোজ দার ‘এইট্টি নাইন’ দেখার পর ফ্যান হয়ে গেছিলাম। অনেকদিন ধরে প্ল্যান করছি একসাথে কাজ করব। ফাইনালি এই প্রজেক্টটা হল”। এই ছবিতে অসম্ভব চ্যলেঞ্জিং মূল চরিত্রে দেখা যাবে দেবপ্রিয়কে, স্বাভাবিকভাবে উচ্ছসিত গলায় বলে ওঠেন, “একটা বড় চ্যলেঞ্জ দিয়েছে মনোজদা। যে চরিত্রটা দিয়েছে সেটা করার জন্য প্রিপারেশন হিসাবে হয়তো সোশ্যাল মিডিয়া থেকে বেরিয়ে যেতে হবে, নিজেকে পুরোপুরি ডিটাচ করে নিতে হবে ফ্রম মাই লাইফ স্টাইল। পুরোটাই চরিত্রের ভিতরে ঢুকে থাকতে হবে”।

চরিত্রটা যে বেশ কঠিন তা নিয়ে একমত পরিচালকেরও, “অনেকদিন ধরেই ভাবছিলাম রোলটা কে করবে, যেহেতু এখানে কোনও ডায়লগ লেই, অ্যন্ড ইউ হ্যভ টু কমিউনিকেট থ্রু ইউর আইস, এক্সপ্রেশন অ্যন্ড বডি ল্যঙ্গোইয়েজ। আমার জন্য কাস্ট খুবই চ্যলেঞ্জিং ছিল। বাট আই ফেল্ট দেবপ্রিয় উইল বি ফিটেস্ট টু দ্য ক্যরেক্টার। আই অ্যম ভেরি কনফিডেন্ট”। এরম নির্বাক চরিত্রের জন্য কতটা কনফিডেন্ট দেবপ্রিয় নিজে, জানতে চাইলে বলেন, “অনেকটাই আমি মনোজদার উপর ছেড়ে দিয়েছি। আমরা তো দুটো স্কুল অফ অ্যক্টিং এ বিলিভ করি, ইন্সটিংটিভ অ্যন্ড মেথড স্কুল অফ অ্যক্টিং।

এখানে মেথডটাই কাজে লাগাবো আর ফরচুনেটলি আমি মেথডটাই অঞ্জনদার(দত্ত) কাছে শিখেছি”। চরিত্রটা ঠিক কি তা নিয়ে খুব বেশি কথা বলতে চাইলেন না কেউই, তাও দেবপ্রিয় জানালেন, “খুব কঠিন চরিত্র, কোনও সংলাপ নেই। চরিত্রটা যে জীবনটা লিড করছে আমরা স্বাভাবিক জীবনে এরম চরিত্র খুব কম দেখি বা প্রায় দেখিই না। তাই কাউকে স্টাডি করে ক্যরেক্টারটা অ্যপ্লাই করতে পারব না”। এই ছবির গল্প নিয়ে পরিচালক জানালেন, “বাবা ও ছেলের গল্প, যারা বহু বছর ধরে বিভিন্ন মানুষকে ডিল করছে, তাদের প্রফেশন রিভিল করছি না, তারা কিভাবে লাইফকে হ্যন্ডেল করছে সেটা নিয়েই গল্প”। দেবপ্রিয় আরও যোগ করেন, “গল্পটাকে ক্যারি ফরঅয়ার্ড করছে ভিস্যুয়াসল অফ দ্য ফ্রেম। চরিত্র গুলোকে আলাদা করে সংলাপ বলতে হচ্ছে না। যদিও গল্পটা বাবা ও ছেলের কিন্তু পুরো সিনেমাকে যেভাবে প্ল্যান করেছে মনোজ দা সেখানে দ্য অ্যটমসফিয়ার বিকামস অ্য ক্যারেক্টার, যে বাড়িটা দেখানো হয়েছে সেটাও একটা ক্যারেক্টার, আরও একটা জিনিস যেটা ক্যারেক্টার হয়ে ওঠে সেটা এখনই রিভিল করব না কিন্তু ইন্টারেসটিং”।

ছবির শ্যুটিং কবে থেকে শুরু হবে জানতে চাইলে পরিচালক মিশিগান জানান, “আমরা প্ল্যান করছি মে মাসে। পুরোটাই আউটডোর। মেদিনীপুরের দিকে যেখানে নদী আছে, লাল মাটি আছে এরম একটা জায়গা দেখছি”। সব শেষে একটা ব্যাপার খুবই স্পষ্ট যে এই ছবির চরিত্রই ছবির একটা অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ দিক, যার জন্য অপেক্ষা করতেই হবে ছবি রিলিজের। আপনাদের জন্য রইল ‘আই, রিবর্ন’ এর পোস্টার। আরও জানতে চোখ রাখুন গুলগালে…