প্রেমের অচেনা রহস্যে বেসমেন্টের অন্ধকারে “নীলাঞ্জনা”!

একটা ডার্ক অ্যান্টি হিরো চরিত্র অনেকদিন বাদে ফিরে এল বাংলা সিনেমায়, সিনেমার নাম ও প্রধান চরিত্র “নীলাঞ্জনা”, পরিচালক অর্ক সিনহা, প্রধান ভুমিকায় প্রিয়াঙ্কা সরকার ও মৈনাক ব্যানার্জি।

প্রেমের অচেনা রহস্যে আটকে পড়েছে নীলাঞ্জনা এক বেসমেন্টের অন্ধকারে, সৌজন্যে একজন অন্ধপ্রেমিক, যার কাছে প্রেমটা ভারসম্যহীন, এরকম একটা ডার্ক অ্যান্টি হিরো চরিত্র অনেকদিন বাদে ফিরে এল বাংলা সিনেমায়, সিনেমার নাম ও প্রধান চরিত্র “নীলাঞ্জনা”, পরিচালক অর্ক সিনহা, প্রধান ভুমিকায় প্রিয়াঙ্কা সরকারমৈনাক ব্যানার্জি। কালকেই রিলিজ হোল পার্পেল এন্টারটেনমেন্টের পরবর্তী চমকের এক টুকরো ঝলক! সবথেকে লক্ষণীয় বিষয় ট্রেলারে প্রিয়াঙ্কা ওরফে “নীলাঞ্জনা”র অবস্থা পরিস্থিতির আভাষ পাওয়া গেলেও , যার জন্য এতো বিভ্রান্ত নায়িকা, সেই বদ্ধপ্রেমিকের গলার শব্দেই পরিচালক বুঝিয়ে দিলেন ভয় ও সাসপেন্সটা কতোটা ইম্প্যাক্ট হতে চলেছে গোটা সিনেমায়! যদিও টিপিক্যাল ভিলেনের চরিত্র একদম না-পসন্দ মৈনাক ব্যানার্জি’র! কেন করলেন এইরকম একটা চরিত্র, ফোনে তাঁকে ধরা হলে জানান আমাদের, “আমি কমার্শিয়াল সিনেমার টিপিক্যাল ভিলেন করতে চাই না, এটা অনেক চ্যালেঞ্জিং একটা রোল ছিল, সে ভীষণ অবসেসড ঐ মেয়েকে নিয়ে, সাইকো’র মত, একদম কলেজ লাইফ থেকে বিয়ে সবজায়গায় মেয়েটাকে ফলো করতে থাকে ছেলেটি!” তাহলে বুঝতেই পারছেন একদম “নীলাঞ্জনা” কতোটা সমস্যায় পড়েছে ঐ রাতের অন্ধকারে, এপ্রিল মাসের মাঝামাঝি সময়ে আপনাদের কাছের হলে আসছে বাকি গল্প, আপনাদের জন্য থাকলো “নীলাঞ্জনা”র এক্সক্লুসিভ ট্রেলার আর অপেক্ষায় রইল “নীলাঞ্জনা” এইরকম পাগল প্রেমিকের অন্ধকার ফাঁদ থেকে বেরিয়ে ভোরের আলো দেখতে পায় কিনা!