পুজোর আগে এ কী হাল সৃজিতের ?

পার্বতী
Naughty নারদ : পর্ব 1

নারদ ।। নারায়ণ! নারায়ণ!

মহাদেব ।। এ কী ! সক্কাল সক্কাল হাঁপাচ্ছো কেন নারদভাই ?

নারদ. ।। হাঁপাব না? কী বলেন প্রভু !

মহাদেব. ।। (বিরক্ত) আরে, তাড়াতাড়ি বলো কী বলবে। দেখছো তো পার্বতীর ব্যাগটা প্যাক করছি।

নারদ. ।। তাহলে শুনুন। আপনার ফেভারিট ‘নির্বাক’ ডিরেক্টর সৃজিত এখন লোকের দোরে দোরে ঘুরে কাজ চাইছে।

মহাদেব. ।। (চমকে উঠে) বলো কি ! ওর তো এবার পুজোয় ‘এক যে ছিল রাজা‘ মুক্তি পাচ্ছে। তাহলে সমস্যাটা কোথায় ?

নারদ. ।। কেসটা অন্য। বাবুর এখন ইচ্ছে হয়েছে জয়া এহসানের সঙ্গে অনস্ক্রিন…ইয়ে, মানে, অভিনয় করার।

মহাদেব. ।। অ্যাঁ ? তোমায় কে বলল ?

নারদ. ।। এই তো গন্ডগোল ! সোর্স জেনে কাজ নেই গুরুদেব!

মহাদেব. ।। আচ্ছা বেশ। তো কোথায় যাচ্ছে কাজ চাইতে ?

নারদ. ।। নন্দিতাদি-শিবুদা‘র আপিসে ভোরবেলা গিয়ে দেখা করতে চেয়েছে। অভিনয়ের ক্লিপ পাঠিয়েছে। এখানেই ক্ষান্ত হননি। ‘বিসর্জন‘ দেখে ‘বিজয়া‘র জন্য নাসির আলির চরিত্রেও অডিশন দিতে চেয়েছে। কৌশিক নেননি !

মহাদেব. ।। বলো কি হে ? তা, কেউ যখন নিচ্ছে না, নিজের সিনেমাতেই তো জয়ার সঙ্গে অভিনয় করতে পারে। দাঁড়াও, পার্বতীকে বলি খোঁজ নিতে। পুজোয় মর্ত্যে গিয়ে এই জয়া-সৃজিতের ব্যাপারটা, মানে, অভিনয়ের গল্পটা কতটা এগিয়েছে, তদন্ত করবে ও।

নারদ. ।। আজ্ঞে হ্যাঁ…মিশন সৃ’জয়া’জিত ! নারায়ণ ! নারায়ণ !