“মুনমুন -টা সিরিয়াস ছিলনা ছবির ক্ষেত্রে” – চিরঞ্জিত

চিরঞ্জিত

‘ আজ এই দিনটাকে মনের খাতায় লিখে রাখো
আমায় পড়বে মনে
কাছে দূরে যেখানেই থাকো।

এসো আজ সারাদিন বসে নয় থাকি পাশাপাশি
আজ শুধু ভালবাসাবাসি
শুধু গান আর হাসাহাসি
রঙের বর্ষা ওই নেমেছে যে দেখো ফুলে ফুলে
দুটি হাত তুলে
আমাকেই আরো কাছে ডাকো।।’

আশির দশকে কিশোর কুমারের এই গান সব সরস্বতী পুজো,দুর্গা পুজোর প্যান্ডেলে মাইকে বাজত। কতজনের কত প্রেম,প্রথম দেখা,প্রেম ভাঙা,বিরহ,ছোটোবেলার নস্ট্যালজিয়া জড়িয়ে গানটার সাথে। বাপ্পি লাহিড়ীর সুর। ‘অন্তরালে’ ছবির গান। মুনমুন সেন ও চিরঞ্জিত চক্রবর্তী অভিনীত সুপার ডুপার হিট ছবি। ‘অন্তরালে’ ছবিটা বক্সঅফিস হিট হওয়ায় অনেকেই ভেবেছিল সুচিত্রা সেন কন্যার সঙ্গে চিরঞ্জিত জুটিটা অনেকদূর যাবে। ওঁদের জুটির পরবর্তী সুপারহিট ছবি ও ছিল ‘অমরকন্টক’। অজয় দাসের সুরে সে ছবির গানও সুপারহিট। ছবি দুটো ক্লিক করলেও কিন্তু পরে আর সেভাবে মুনমুন চিরঞ্জিত জুটি সুদূরপ্রসারী হলনা।

চিরঞ্জিত জানালেন এর কারন।

চিরঞ্জিও বললেন “আমার সঙ্গে নায়িকার জুটি বলতে মুনমুন সেনের সঙ্গে আমার জুটি।যেটা নিয়ে লোকে খুব হৈহৈ করেছিল।সবাই চেয়েছিল আমাদের জুটিটা অনেক দূর যাক। সেসময় ক্লিক করে গেছিল আমাদের জুটি সে ছবি হল ‘অন্তরালে’। সবাই খুব আলোচনা করছিল আমাদের জুটি নিয়ে। ‘অমরকন্টক’ ও হিট করে। কিন্তু পরে মুনমুন আর আমার ছবির বেশী হলনা। মুনমুনও বেশী ছবি পেলনা।আসলে মুনমুনটা সিরিয়াস ছিলনা ছবির ক্ষেত্রে।”

মুনমুন জানাচ্ছেন অন্য মত,

মুনমুনের মতে “তখনকার বেশী ছবির এমন স্ক্রীপ্ট ছিল ঐ স্ক্রীপ্টে আমার মা ও ভালো অভিনয় করতে পারতনা। আমায় ঘরের বউ নয় টিচারের রোল দেওয়া হত।মেয়েদের এর বাইরে ভাবা হয়না। রাইমা অনেক ভালো ছবি ভালো চরিত্র পাচ্ছে যা আমি পাইনি।”

 

লেখা – শুভদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়

 

রবীন্দ্রসঙ্গীতে বাঙালী অবাঙালী অবতারণা কেন ?