জিৎ এর ঘরে ভুতের প্রবেশ ! কিন্তু আসল গল্প টা কি ?

পাভেল

সুরিন্দর ফিল্মসের হাত ধরে বাংলা ছবির দর্শকরা এবার পাবেন হরর কমেডির স্বাদ। ‘কমেডি বিকামস্ ট্র্যাজেডি’-র সাথে হলিউড বহুল পরিচিত হলেও হিন্দি সিনেমায় ‘গোলমাল এগেইন’ ও ‘স্ত্রী’ ছাড়া তেমন উদাহরণ পাওয়া যায়না। খোদ সেই ধারার সাথেই বাংলা ছবির দর্শকদের পরিচয় করাতে চলেছেন “রসগোল্লা” খ্যাত পাভেল ও “বিলের ডায়েরি” খ্যাত ডিরেক্টর বিশ্বরূপ বিশ্বাসের টিম। সিনেমার নাম “বাচ্চা শ্বশুর“, মুখ্য চরিত্রে রয়েছেন সুপারস্টার জিৎ ও নবাগত আমন মেহেরা। ২০১৫ এ মুক্তিপ্রাপ্ত বাংলা ছবি “বাওয়াল”। এরপর পাভেল, বিশ্বরূপ বিশ্বাস ও সুপ্রিয় দত্ত আবার একসাথে হয়েছেন জিৎস প্রোডাকশনের এই প্রজেক্টের জন্য।

গত ডিসেম্বরে সামনে আসা এই ছবির পোস্টার দেখে অনেকেই মনে করেছিলেন হয়ত “জিরো” সিনেমার মত ভিস্যুয়াল এফেক্টস এর ব্যবহার দেখা যাবে চিরঞ্জিত চক্রবর্তীর চরিত্র চিত্রণে। কিন্তু আর্ট ডিরেক্টর পাভেল এর চাতুর্যে ট্রেলার রিলিজ এর সাথে সাথেই এই মুভি নিয়ে ধারণা পরিবর্তনের সাথে উত্তেজনার পারদও চরমে উঠল। জিৎ আর পাভেল জুটি নিয়ে দর্শক ইতিমধ্যেই আশায় বুক বাঁধতে শুরু করেছে। মূলধারার বাংলা ছবিতে বহুদিন পর ভিন্নধর্মী গল্প ও মৌলিক স্ক্রিপ্ট নিয়ে সিনেমা হতে চলেছে। এই বিষয়টি নিয়ে দর্শকদের প্রতিক্রিয়া ভীষণই পজিটিভ।

ট্রেলারে দেখা যাচ্ছে জিৎ ওরফে স্পন্দন প্রথম জীবনে এক ভবঘুরে চরিত্র, যার কারণে হয়ত জোনাকির(কৌশানি) সাথে তার বিয়ে দিতে চাননি তার বাবা। পরে তাদের পালিয়ে বিয়ে, ঘটনাচক্রে জোনাকির বাবা ও মার শেষ জীবন কাটে বহু কষ্টে ও একাকিত্বে। মৃত্যুকালে তাদের কপালে মারও জোটে। ট্রেলারে শ্বশুর কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই দেখা যায়, ট্রাক অ্যাক্সিডেন্টের দৃশ্য, এবং তাতেই হয়ত জোনাকির বাবার(চিরঞ্জিত চক্রবর্তী) মৃত্যু হয়। পরবর্তীকালে জোনাকি ও স্পন্দনের ছেলে গুটলুর(আমন মেহেরা) মধ্যে তার আত্মা প্রবেশ করে ও নিজ মেয়ে জামাই এর জীবন অতিষ্ট করে তোলে।এই সিনেমায় জিৎ-এর চরিত্রটি দুটো ভিন্ন মেরুতে দেখা যাবে, একটি ভ্যাগাবন্ড ও দ্বিতীয়টি সঞ্চালক রূপে। জিৎ তার দুই ভূমিকাতে আপাতভাবে সফল। তবে বাংলা সিরিয়ালের পরিচিত মুখ শিশুশিল্পী আমন এর স্ক্রিন প্রেজেন্স অসামান্য। চিরঞ্জিত চক্রবর্তী, জিৎ এর মত দক্ষ অভিনেতাদের সাথে পাল্লা দিয়ে স্ক্রিন স্পেস শেয়ার করে গেছে সে। পার্শ্বচরিত্রে অম্বরিশ, কৌশানীও বেশ নজর কাড়া।

এই ধারার ছবিতে গানের একটি বিশেষ ভূমিকা থাকে। সেই বিষয়টি মাথায় রেখেই বোধহয় ছয় জনকে নিয়ে মিউজিক ডিরেক্টরের টিম তৈরি করেছেন ছবির নির্মাতারা। ট্রেলারের ছোট ছোট দৃশ্যে ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক বেশ চমকপ্রদ এবং ছবির ধারা অনুযায়ী বেশ সামঞ্জস্য রেখে তৈরি হয়েছে বলে মনে হচ্ছে। সব মিলিয়ে আসন্ন সরস্বতী পুজোতে সপরিবারে দেখতে যাওয়ার মত এক ‘কমপ্লিট এন্টারটেইনমেন্ট প্যাকেজ’ ফিল্ম বলেই মনে হচ্ছে “বাচ্চা শ্বশুর”-কে

Written By – শুভ্রজিৎ সাহা