সৃজিতের ‘চৌরঙ্গী’তে এবার বড়সড় রদবদল!

সাহিত্যিক মনিশঙ্কর মুখোপাধ্যায়ের বেস্টসেলার উপন্যাস ‘চৌরঙ্গী’ অবলম্বনে ১৯৬৮ সালে মুক্তি পেয়েছিল ‘চৌরঙ্গী’। একটি পাঁচ তারা হোটেলের প্রতিদিনকার রোজনামচার নেপথ্যে যে মানুষগুলো থাকে, তাদের জীবন উঠে এসেছে গল্পের প্রেক্ষাপটে। পিনাকী ভূষণ মুখার্জি পরিচালিত চৌরঙ্গীর মুখ্য ভূমিকায় ছিলেন উত্তম কুমার, সুপ্রিয়া দেবী, বিশ্বজিৎ চট্টোপাধ্যায়, শুভেন্দু চট্টোপাধ্যায়, ভানু বন্দ্যোপাধ্যায়, অঞ্জনা ভৌমিক ও উৎপল দত্তের মতো তারকারা। আর এই স্মরণীয় চলচ্চিত্রের সঙ্গেই নিজেকে জড়াতে চলেছেন বলে এ বছরের শুরুতে ঘোষণা করেছিলেন পরিচালক সৃজিত মুখার্জি। নিজের ম্যাচকাট প্রোডাকশন হাউসের শুভমুক্তিতে ‘চৌরঙ্গী’র মতো কালজয়ী সিনেমাকে নতুন ভাবে বানানোর ইঙ্গিত দিয়েছিলেন তিনি। এ প্রসঙ্গে তিনিবলেছিলেন, “আমরা পুরোনোচৌরঙ্গী রিমেক করছি না। এটা অন্য রকম ছবি হবে। এখানে গল্প বলার ধরনটাই হবে আলাদা। এত বছর পর হোটেল সংস্কৃতির চিত্রটা পাল্টে গেছে। তাই আমাদের গল্পটা ২০১৮ সালের প্রেক্ষাপটে তৈরি হবে।”

সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে এ বছরের জুনেই শু্টিং শুরু হওয়ার কথা ছিল ‘চৌরঙ্গী’র। এসভিএফ এর সঙ্গে যৌথ প্রযোজনায় সৃজিত ইঙ্গিত দেন একসঙ্গে আরও বেশ কয়েকটি প্রজেক্টের। সৃজিতের করবী গুহ হওয়ার কথা ছিল বাংলাদেশের অভিনেত্রী জয়া আহসানের। আর সাজাহান হোটেলের প্রধান রিসেপশনিস্ট স্যাটা বোসের চরিত্রে কাস্ট ছিলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। জয়া আহসান এবং প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ছাড়াও এই ছবিতে অনিন্দ্য পাকড়াশি চরিত্রে যীশু সেনগুপ্ত, মিসেস পাকড়াশি চরিত্রে মমতা শঙ্কর, কথক শঙ্কর চরিত্রে আবির চট্টোপাধ্যায় এবং মার্কো পোলো চরিত্রে অঞ্জন দত্তকে কাস্টিং করার কথা ঘোষণা করেছিলেন সৃজিত।

আরও পড়ুন : ব্যোমকেশের ছেলেই কি তবে খুনি?

কিন্তু সেই কাস্টলিস্টই এখন বদলের পথে। কিছুদিন আগেই নিজের সরে দাঁড়ানোর কথা ঘোষণা করেছিলেন জয়া আহসান, এবার সেই তালিকায় নতুন সংযোজন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ও যীশু সেনগুপ্ত। তবে উভয়েই পরিচালকের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা জানিয়েছেন। পুরো কাস্ট লিস্টই তাই নতুন করে সাজাতে চলেছেন সৃজিত। আপাতত সৃজিতের ভাবনায় ঘোরাফেরা করছে পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়, স্বস্তিকা মুখার্জি, রুদ্রনীল ঘোষ, বাবুল সুপ্রিয়ের মত অভিনেতাদের নাম। বলা হয়, ‘চৌরঙ্গী’ই নাকি বাঙালি পাঠককে প্রথম পাঁচ তারা হোটেল চিনিয়েছিল। এখন দেখার বিষয় দর্শকের কাছে নিজের প্রযোজনা সংস্থাকে চেনাতে কারা হয়ে ওঠেন সৃজিতের ‘চৌরঙ্গী’।