ঘোঁতনের জীবনে এল এই রহস্যময়ী মহিলা! তারপর ?

রেনবো জেলি

আমাদের প্রায় প্রত্যেকের কাছেই শৈশব সময়টা খুব স্পেশাল। আমাদের নস্টালজিয়া, স্মৃতি, ভালোলাগা-মন্দলাগা বা বেড়ে ওঠার ভিত – সবকিছুই তৈরি করে দ্যায় শৈশব। আর তাই শৈশবের কাছে বারে বারে ফিরে যেতে চাই আমরা। কিন্তু ঘোঁতনের মতো কিছু কিছু জনের কাছে বোধ হয় শৈশবের স্মৃতি ঠিক অতটা আনন্দ বয়ে আনে না। তার শৈশবে হাসি, খেলা, আনন্দের বদলে থাকে মামার সংসারে চাকরের মতো খাটা। মামার মার। অটিজমে আক্রান্ত হওয়ার কারণে ঘরে-বাইরে যাকে হেনস্থার মুখোমুখি হতে হয় প্রতিদিন। শুনতে হয়, ‘অপয়ার ছেলে’। সেই ঘোঁতনেরও জীবনে কী বদল আসে? হ্যাঁ, আসে পরীপিসির রূপ ধরে। এক রহস্যময়ী মহিলা, যিনি ঘোঁতনের সাহায্যে এসে নিজের ম্যাজিকাল মশলা দিয়ে রান্না করেন একের পর এক। নানা স্বাদের গন্ধের সেই রান্না তাদের স্বাদানুযায়ী এক লহমায় বদলে দিতে পারে মানুষের মন, আবেগ। সেই রেনবো মশলা দিয়ে কী ঘোঁতন পারবে তার নষ্ট হতে বসা জীবনটাকে আর একটু সুন্দর করে তুলতে? এই কৌতূহলই জিইয়ে রাখে সৌকর্য ঘোষালের নতুন ছবি ‘ রেনবো জেলি ’-র ট্রেলার।

কৌশিক সেনের অভিনীত মামার ভাগ্নে হয়ে ছবিতে ঘোঁতনের চরিত্রে রয়েছে নবাগত মহাব্রত। আর পরীপিসির চরিত্রে নতুন লুকে আসছেন শ্রীলেখা মিত্র। অতএব অভিনয়ে যে কোনো কমতি থাকবে না, বলাই বাহুল্য। আবহসঙ্গীত আর সিনেমাটোগ্রাফিতেও মুনশিয়ানার ঝলক দেখা গিয়েছে ট্রেলারে। সব মিলিয়ে বাংলার প্রথম ফুড ফ্যান্টাসি ফিল্ম ‘রেনবো জেলি’ চাখতে হলমুখী হতেই হবে দর্শকদের!