এরকম ট্রেলার হলে সিনেমা নিয়ে প্রত্যাশা অনেকটাই বেড়ে যায়!

ক খ গ ঘ… বর্ণপরিচয় নয়। তবে, আবার নতুন করে শুরু তো বটেই। বাংলা সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির প্রায় অবহেলিত একটি শাখার নিবু নিবু আগুনে আবার নতুন করে ঘি ঢালা। বুঝলেন না তো? তাহলে খুলেই বলা যাক। ড: কৃষ্ণেন্দু চ্যাটার্জিকে মনে আছে নিশ্চয়ই সবার? সেই কৃষ্ণেন্দুই আবার ফিরছেন – তবে তফাত থাকছে দুটো। এক, এবার তাঁর কৌতুকের ডালি সাজানো থাকছে ছোটো পর্দায় নয়, বড় পর্দায়। দুই, এবার তিনি ক্যামেরার সামনে নন, পিছনে। হ্যাঁ, তাঁরই পরিচালনায়, কৃষ্ণা মুভিজের প্রযোজনায় আসছে নতুন বাংলা ছবি – “ক খ গ ঘ”।

সিনেমার ট্রেলার দেখেই চমকে উঠতে হয়। ট্রেলারের মধ্য দিয়ে যতটুকু আঁচ করা গিয়েছে, তাতে বোঝা যায়, এ-ও সেই সিনেমার ভেতরের সিনেমার গল্প। কিন্তু তাতেও রয়েছে কমেডির টুইস্ট – এক মেসবাড়ির স্ট্রাগলিং অভিনেতা-লেখকদের সিনেমা তৈরির স্বপ্ন। যার জন্য তারা প্রোডিউসারকে কিডন্যাপ করার প্ল্যান বানাতেও পিছ-পা হয় না! আর অভিনেতাদের লিস্টে যখন থাকে পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়, কৌশিক গাঙ্গুলি, অপরাজিতা আঢ্য, সায়নী ঘোষ, মীরের পাশাপাশি লামা, সমদর্শী, সায়ন, রোহিত হয়ে সুমিত হালদারদের নাম, তখন সহজেই বোঝা যায়, এ সিনেমার কমেডি খেলতে নেমে নেহাত সহজে মাঠ ছেড়ে দেবে না। ট্রেলার যখন এমন হয়, তখন সিনেমার জন্য প্রত্যাশা আপনিই বেড়ে যায় অনেক। এখন শুধু অপেক্ষা। শুধু প্রত্যাশার দাবী নয়, সাড়ে চুয়াত্তর – বসন্ত বিলাপ – ভানু গোয়েন্দাদের উত্তরাধিকারের শূন্যতায় কী সামান্য হলেও প্রলেপ দিতে পারবে “ক খ গ ঘ”? তারই উত্তর খুঁজতে দর্শকরা অপেক্ষায়…