বাজেটকে বুড়ো আঙুল দেখাতে প্রস্তুত “ডিটেকটিভ কে” !

"ব্যোমকেশ", "ফেলুদা"র কথা নেহাতই ভোলার মতো নয়। বাংলা সিনেমায় প্রায়শই তাদের আগমন উত্তেজনার ঝড় তুলেছে দর্শকদের মধ্যে। সবশেষে চলচ্চিত্র দুনিয়ায় জুড়ে গেলো আরও একটি নাম- "ডিটেকটিভ কে"।

“ব্যোমকেশ”, “ফেলুদা”র কথা নেহাতই ভোলার মতো নয়। বাংলা সিনেমায় প্রায়শই তাদের আগমন উত্তেজনার ঝড় তুলেছে দর্শকদের মধ্যে। সবশেষে চলচ্চিত্র দুনিয়ায় জুড়ে গেলো আরও একটি নাম- “ডিটেকটিভ কে”। গোয়েন্দা গল্পের অনুরাগীদের কাছে খবরটা বেশ আমেজ দেওয়ার মতোই। চলতি বছরের মে মাসে রুপোলী পর্দায় দর্শন দেবেন “ডিটেকটিভ কে”। সম্পূর্ণ বিষয়টাই পরিচালক অভিরুপ ঘোষ এর মস্তিস্কপ্রসুত। তাঁর পরিচালনায় রুপোলী পর্দায় পা রাখতে চলেছে গোয়েন্দা গল্পের নতুন সংস্করণ “K-Secret Eye”. ছবিটির প্রযোজনার দায়িত্ব তুলে নিয়েছে ‘ট্রু কলিং মিডিয়া’ এবং শান্তনু চক্রবর্তী।

টলিপাড়ার জনপ্রিয় সিনেমা ব্যক্তিত্ব রুদ্রনীল ঘোষ, রজতাভ দত্ত, দেবস্মিতা বোস, শ্রীদীপ মূখার্জী‘দের নিয়ে তৈরি হয়েছে ছবিটির কাস্টিং। “ডিটেকটিভ কে” এর চরিত্রে অভিনয় করছেন রুদ্রনীল ঘোষ। প্রায় সময়ই টলিউডে আবির্ভাব ঘটে নিত্যনতুন গোয়েন্দার কিন্তু এবারের গোয়েন্দা যেন একেবারেই ব্যতিক্রমী। চ্যালেঞ্জটা কিন্তু একটু অন্য জায়গায়, সেটা হোল এই সিনেমা সায়েন্স ফিকশ্যানের তাই গ্রাফিক্সের কাজ ছাড়া হাঁটা অসম্ভব সেখানে এই সিনেমার বাজেট আর পাঁচটা বাংলা সিনেমার মত আর ট্রেলারে যে আভাস পাওয়া গেলো বোঝা যাচ্ছে সেই কাজে সাধ্যমত চেষ্টা হয়েছে, এই চ্যালেঞ্জটা বেশ শক্ত!

এখন দেখার পালা সিনেমাতে কতটা প্রত্যাশা পূরণ করতে পারে পরিচালক! তাই এই সিনেমার দিকে নজর থাকবে আমাদের সবার, আপনাদের জন্য থাকলো “ডিটেকটিভ কে”র ট্রেলার, দেখুন এবং জানান আমাদের এই নতুন প্রজন্মের পরিচালকদের সিনেমা নিয়ে কতোটা আশাবাদী আপনারা?

দেখুন ট্রেলার :