এক মাদকাসক্তর জীবন !

রবার্ট ডাউনি জুনিয়র

বার্টের বাবা ডিভোর্সি। ছেলেকে রাখেন নিজের কাছে। ফিল্মমেকার বাবা ছেলের সাথে সখ্যতা রাখতে মাত্র ছয় বছর বয়সে গাঁজা খাওয়া শুরু করান। রবার্ট মাত্র ১৭ বছর বয়স থেকেই জেলে যাওয়া শুরু করলেন মাদকাসক্ত হওয়ার জন্য৷ স্কুল থেকেও বিতাড়িত হলেন। সিনেমার ছোট ছোট চরিত্রে অভিনয় করতেন। এর মধ্যে স্যাটারডে নাইট শো তে ডাক পান। কদিন পর সেখান থেকেও বিতাড়িত হলেন। বৌ ছেড়ে চলে যায়। এরপরও জেল যাওয়া চলতে থাকে। দ্বিতীয় বৌও তাকে সাবধান করে নেশার করার জন্য।

এর অনেক আগে ‘লেস দ্যান জিরো’ সিনেমায় মাদকাসক্তর ভূমিকায় অভিনয় করে প্রথম ভাবেন এই নেশামুক্তি করতে হবে। যাইহোক প্রথম বৌ যাওয়ার পর তিনি ক্রমাগত কাউন্সেলিং এ যান এবং মাদকসেবন থেকে বেড়িয়ে আসেন। এরপর জোডিয়াক, শার্লক হোমস সিনেমায় অভিনয়ও করেন। শার্লক হোমসের জন্য গোল্ডেন গ্লোব পান। কিন্তু ভক্তরা তাকে চেনে আয়রনম্যান হিসাবে। মোট নয়টি সিনেমায় আয়রনম্যান হিসাবে দেখা গেছে তাঁকে। বর্তমানে তিনি হলিউডের অন্যতম প্রভাবশালী রবার্ট ডাউনি জুনিয়র। কিভাবে খাদের ধার থেকে উঠে এসে বিশ্বকে জয় করা যায় তা দেখিয়েছিলেন তিনি।