সৎ চেষ্টা বিফলে যায় না, এটাই বোধহয় নায়িকাকে বোঝাচ্ছেন পরিচালক!

Samik Roy Chowdhury and Moulika Sajwal
Samik Roy Chowdhury and Moulika Sajwal

বাংলার কমার্শিয়াল ছবির পরিচালকদের কাছে ঝুড়ি ভর্তি অ্যাচিভমেন্ট থাকলেও এবার লাইম লাইটের বাইরে থাকছেন না ইন্ডিপেন্ডেন্ট ফিল্মমেকার’রাও কারণ মানুষ প্রাধান্য দিচ্ছে ‘ভালো’ কাজকে। বাস্তবধর্মী কনটেন্টের ওপর ভর করেই তারা সাজিয়ে চলেছেন তাদের ক্যারিয়ারের সুদূরপ্রসারী জার্নি। এরকমই একজন ইন্ডিপেন্ডেন্ট ফিল্ম মেকারের নাম শমিক রায়চৌধুরী। বিভিন্ন শর্ট ফিল্ম, মিউজিক ভিডিও দিয়ে ক্যারিয়ার শুরু করা এই পরিচালক আজ অনেকটাই পোক্ত। বছর দুই আগে মুক্তি পায় তাঁর বহুল চর্চিত ছবি ‘ডি মেজর’।

মুক্তির পর থেকে আজ অবধি ছবিটির সমালোচনা কেউ’ই করতে পারেননি। ২০১৬ সাল থেকেই ছবিটির সুবাদে ছোট-বড়ো বহু অ্যাওয়ার্ডে সমাদৃত হয়েছেন শমিকবাবু। সম্প্রতি ২’য় ভারতীয় বিশ্ব চলচ্চিত্র উৎসবে’ও ছয়টি ক্যাটাগরিতে নমিনেশন পায় ছবিটি, তালিকাটা বেশ লম্বা পরিচালনা, স্ক্রিন প্লে, অ্যাক্ট্রেস, ক্যামেরা, মিউজিক, এডিটিং এবং তাদের ঝুলিতে আসে বেস্ট এক্ট্রেস অ্যাওয়ার্ড। ২’য় ভারতীয় বিশ্ব চলচ্চিত্র উৎসব’র পক্ষ থেকে অ্যাওয়ার্ডটি পান ‘ডি মেজর’র নায়িকা মৌলিকা সাজওয়াল

 

Go the best actress award in Indian World Film Festival for movie Dmajor

Getting the best actress award in Indian World Film Festival for movie Dmajor

প্রথমবার নিজের সিনেমার জন্য এই সম্মান পেয়ে রীতিমত উচ্ছ্বসিত, “ভীষণ আনন্দ হচ্ছে, নিজের প্রথম সিনেমাতে লিডে কাজ করে ইন্টারন্যাশেনাল পুরষ্কার পাওয়া তো ভয়ঙ্কর আনন্দের ব্যাপার!” এই সম্মানের জন্য আমরা অভিনন্দন জানাই সমগ্র টিম ‘ডিমেজর’ কে। কারণ ছবিটির তৈরির স্ট্রাগেলটা কেবল তাঁরাই জানেন আর ভালো ছবি বানাতে গেলে তো স্ট্রাগল অবশ্যই লাগে। ছবিটির সাফল্যের পর উচ্ছ্বসিত হলেও ইন্ডিপেন্ডেন্ট ফিল্ম মেকিং’র ব্যাপারে কিছু কথা আমাদের সাথে শেয়ার করেন পরিচালক শমিক, তিনি বলেন, “প্রতিটি প্রযোজক বা নতুন যারা ভালো সিনেমা বানাতে চান, তাঁদের কাছে আমার অনুরোধ আমাদের মতো ইন্ডিপেন্ডেন্ট ফিল্ম মেকার’দের পেছনে দাঁড়াতে তাহলে ভবিষ্যতে অনেক অনেক ভালো ভালো কাজ বাংলার নাম উজ্জ্বল করবে এবং বাংলা ছবির কথা ভেবেই এমনটা করা অত্যাবশ্যক।” শমিকের সাথে আমাদের তরফ থেকেও থাকবে একই আবেদন যারা ভালো বাংলা সিনেমা বানাতে চান তাঁরা এগিয়ে আসুন কারণ বাংলার তরুণ রক্তরা এখনো শান্ত হয়ে যায় নি…