চুমু নয়, বাঘের অবতারে ইমরান !

ইমরান

চুম্বন একটা বিপ্লব বটে! আর ইন্ডিয়ান হিন্দি সিনেমার জগতে সেই বিপ্লবের সব থেকে বড় বিপ্লবী নিশ্চিত করেই ইমরান হাসমি! হালকা হাসির ছলে বলা হলেও কথা সর্বাংশে সত্যি। তবে সব কিছুরই বোধহয় একটা সময়কাল আছে! গত দশ বছরের বেশী সময় ধরে ইমরানের এই চকোলেট-ডেভিল চরিত্রের অভিনয় দেখতে দেখতে দর্শক বেশ হাঁপিয়ে উঠেছে। পর পর বেশ কয়েকটা ছবি বক্স অফিসে পড়েছে মুখ থুবড়ে! আজহার হোক বা বাদশাহো ইমরানের অ্যাপিল রক্ষে করতে পারেনি কোনোটিকেই। কোথাও গিয়ে হয়তো একটা ভাঙন প্রয়োজন ছিল। নিজেকে ভেঙে নতুন করে গড়ে নেওয়ার খুব জরুরী ছিল বলিউডের এই চুম্বন সম্রাটের।

ইমরান হাসমিআর সেই অন্যরকম বিপ্লবের সুযোগটা এনে দিলেন পরিচালক দানিশ তানোভিক। ঠিকই ধরেছেন, ইমরান হাসমির নতুন ছবি টাইগারস এর কথাই বলছি! জি5 ওরিজিনালস্-এর এই ছবি যে ইমরানের যেকোনো ছবির থেকে অনেকটা আলাদা হবে ট্রেলার দেখেই তা আন্দাজ করা যায়। এক্সপিরিমেন্টাল চরিত্র বলতে এখনো পর্যন্ত ইমরানের ঝুলিতে দ্য ডার্টি পিকচারের ইব্রাহীম ছাড়া সেভাবে কাউকেই তো মনে পড়ে না। যদিও ডার্টি পিকচার একেবারেই অন্য ঘরানার ছবি, আর মূল চরিত্রে কিন্তু ইমরান মোটেই নয়! কিন্তু ট্রেলার দেখে যতদূর বোঝা যাচ্ছে, টাইগারস ছবিতে ইমরান একাই রাজা; এই ছবি অনেক দিক থেকেই হয়ে যেতে পারে তার কেরিয়ারের অন্যতম সেরা! একদিকে দানিশের মতো একজন ডিরেক্টরের সাথ পাওয়ার সৌভাগ্য, আর অন্যদিকে বেশ শ্বাসরোধকরা গল্পের বুনন, টাইগারস কিন্তু খাঁচা ছেড়ে বলিউডের সিংহাসনে রাজ করতেই পারে! দানিশের আগের ছবি নো ম্যানস্ ল্যান্ড যারা দেখেছেন, তারা দিব্যি জানেন, যে এই ডিরেক্টর রোজকার সমস্যাতে জরিয়ে পড়া মানুষের গল্প কতটা রঙিন করে বলতে পারেন! টাইগারস থেকেও তা প্রত্যাশিত বৈকি। তারপর তো আসে গল্পের কথা, একদিকে এক কোরাপ্টেড ইন্টারন্যাশনাল বেবিফুড নির্মাতা সংস্থার কবলে পড়া ঝাঁঝরা দেশ, শীশু মৃত্যু আর অন্যদিকে একজন সাধারণ মানুষের এই সব কিছুর বিপরীতে গিয়ে রুখে দাঁড়ানোর লড়াই, ট্রেলার তো বলে দেয় এই গল্প। কিন্তু, পরিণতিটা কী হবে? তার জন্যই অপেক্ষা রইল ছবি রিলিজের।

ইমরান হাসমিসারি সারি হিস্টোরিকাল রেফারেন্স, বেশ অন্যরকম ন্যাচারাল লাইট ক্যামেরার কাজ, জমাটি আবহ সঙ্গীত, সব মিলিয়ে টাইগারস দর্শকের মনে জায়গা করে নেওয়ার জায়গা রয়েছে অনেক। তবে এই ছবি কী পারবে ইমরান হাসমিকে আবার স্পটলাইটের নিচে ফিরিয়ে আনতে? বেশ ভুলে থাকা একজন অভিনেতা কী এবার হুঙ্কার করে জানিয়ে দেবেন, যে তিনি ছিলেন…আছেন, এবং থাকবেন?

বিষয় গুলো ভীষণ অনিশ্চিত! যদিও টাইগারস-র ট্রেলার মন ভুলিয়েছে তা বলাই যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here