নিঃশব্দে টাবু !

ফতিমা
লিউডে বহু নায়িকা কোনো না কোনো সময় দাপট দেখিয়েছে। আবার হারিয়েও গেছে। কিন্তু টাবুর মত নিঃশব্দ বিপ্লব কজন দেখাতে পেরেছিলেন? যেকোন চরিত্র যেকোন ধরনের সিনেমায় সে মানানসই৷ ১৯৭১ সালে হায়দ্রাবাদে জন্ম হয় টাবুর। আসল নাম তাবাসসুম ফতিমা হাসমি। অভিনেত্রী শাবানা আজমি ও ফারাহ নাজের বোন হল টাবু। ১৯৮০ সালে বাজার নামক সিনেমায় ছোট্ট রোলে তাকে দেখা যায়। এরপর ১৯৮৫ তে ‘হাম নওজাওয়ান’ এ তাকে দেব আনন্দের মেয়ের চরিত্র দেখা যায়। পেহেলা পেহেলা প্যার তার প্রথম নায়িকা হিসাবে সিনেমা হলেও ১৯৯৬ সালে বিজয়পথ সিনেমার মাধ্যমে সবার নজরে আসে টাবু। ওই বছর তার ৮টা সিনেমা মুক্তি পায়। ‘মাচিস’ সিনেমায় অভিনয়ের জন্য পান জাতীয় পুরষ্কার। এরপর ২০০৩ সালে চাঁদনি বার এর জন্য আবার জাতীয় পুরষ্কার পান এই অভিনেত্রী। ২০০৭ এ নেমসেক সিনেমা দিয়ে তার হলিউড যাত্রা শুরু হয় দ্য নেমসেক দিয়ে। এরপর অ্যাং লির ‘লাইফ অফ পাই’ তেও অভিনয় করেন। দুটোই হিট। বলিউডের কমার্শিয়াল সিনেমাতেও একই সাথে এখনো পর্দা কাঁপাচ্ছেন। নিঃশব্দে তাবাসসুম ফতিমা হাসমি - টাবু হায়দারের জন্য জিতেছেন ফিল্মফেয়ার। দৃশ্যম ও এইবছর অন্ধাধুনে নিজের চরিত্রকে দারুনভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন তিনি। প্রথাগত নায়িকাদের ইঁদুর দৌড়ে তিনি সামিল হননি কখনো। নিজের কালো চুলকে তিনি খুব পছন্দ করেন৷ এটা নিয়ে কোনদিন পরিক্ষানিরীক্ষা না করলেও অন্ধাধুন, দৃশ্যম বা জাল দ্য ট্রাপের মত সিনেমায় ভিলেনির রোল করতেও পিছপা হননি।