কোরিয়ান সিনেমা কিভাবে দখল করেছে বলিউড ?

কোরিয়ান

হুদিন আগের কথা ২০০৬ সালে বিখ্যাত কোরিয়ান সিনেমা ‘ওল্ডবয়’ থেকে প্রথম বারের জন্য কপি করা হয় সঞ্জয় গুপ্তার ‘জিন্দা’ সিনেমাটি। তবে অনেকটা বাদ দিয়ে ভারতীয়করণ করে সিনেমাটির রিলিজ হয়। এর পরবর্তী সময়ে প্রচুর কোরিয়ান সিনেমা থেকে তৈরি ভারতীয় সিনেমা। নিঃশব্দে কপি করে চলেছি আমরা। আজ তেমনই কিছু নাম শোনা যাক।

আওরাপন – মোহিত সুরি পরিচালিত ২০০৭ সালের এই সিনেমাটার কপি হয় ‘অ্যা বিটারসুইট লাইফ‘ থেকে।

মার্ডার ২ – কোরিয়ান সিনেমা ‘দ্য চেসার‘ থেকে কপি করা হয় সিনেমাটি। সিরিয়াল কিলিং নিয়ে সিনেমাটি অনবদ্য ছিল।

আগলি অউর পাগলী – ২০০৮ সালে রনবীর শোরে আর মল্লিকা শেরাওয়াত অভিনীত সিনেমাটি কপি করা হয় ২০০১ সালে ‘মাই স্যাসি গার্ল‘ থেকে।

এক ভিলেন – চোয় মিন সিকের বিখ্যাত সিনেমা ‘দ্য চেসার‘ থেকে অনুপ্রানিত সিনেমা হল ‘এক ভিলেন’। মোহিত সুরি পরিচালিত সিদ্ধার্থ মালহোত্রা অভিনীত সিনেমাটা রিলিজ হয় ২০১৩ তে।

জজবা – ২০১৬ সালে ঐশ্বর্য রাই অভিনিত সিনেমাটি নেওয়া হয় কোরিয়ান মুভি সেভেন ডেস থেকে।

রকি হ্যান্ডসামরাজ চক্রবর্তীকে আমরা কপি করা নিয়ে অনেক মজা করি কিন্তু নিশিকান্ত কামাত পুরো ফ্রেম টু ফ্রেম কপি করে ‘দ্য ম্যান ফ্রম নো হোয়ার‘ থেকে। আসল সিনেমার বিন্দুমাত্র পরিবর্তন করেননি পরিচালক।

তিন– ঋভু দাশগুপ্ত পরিচালিত ২০১৬ সালের এই সিনেমাটি নেওয়া হয়েছে কোরিয়ান সিনেমা মন্টেজ থেকে। অভিনয় করেছিলেন অমিতাভ বচ্চন বিদ্যা বালান

ভারতসলমন খানের আপকামিং সিনেমা ‘ভারত’ অনুপ্রাণিত হয়েছে ‘ওড টু মাই ফাদার‘ থেকে।