গালি বয় প্রমাণ করে দিল: বন্ধুত্ব থেকে ছুটি নেয়নি বলিউড !

গালি

নেপটিজম, ব্যাক বাইটিং, #মিটু মুভমেন্ট এই সমস্ত কিছুর তলায় চাপা পড়া মুম্বই ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রীর দিকে তাকালে আজকাল একটা মনে হওয়া ভীষণ রকম তীব্র হয়ে আসে। যেন কোনো ভালোলাগা, ভালো বন্ধুত্বই আর এক্সিস্ট করে না আমাদের প্রিয় বলিউড স্টারদের জীবনে! কিন্তু আসলেই কী তাই? সত্যিই কী বন্ধুত্ব, সহানুভূতি, অ্যাপ্রিসিয়েসনের মতো ভীষণ স্বাভাবিক মানসিক অনুভূতি গুলো থেকে ছুটি নিয়েছে বলিউড! স্টারডম আর স্পটলাইটের ম্যাজিকাল আলোর মতোই বলিউডকেও আদতে বুঝে ওঠা ভীষণ কঠিন। এই এত ভাঙনের মধ্যেও তাই হয়তো হঠাৎ করেই বলিউড স্টারদের সুইট কিছু কাজ, মনে করিয়ে দেয়, অনেক খারাপের মধ্যেও অনেকটা ভালো এখনো টিকে আছে। আর এবারে এই কদাটা আবারো প্রমাণ করে দিলেন সুপারস্টার ঋত্বিক রোশন। জোয়া আখতারের নতুন ছবি গালি বয় রিলিজের শুভ অবসরে, বন্ধু জোয়াকে মেনশন করে ট্যুইটারে তিনি লিখলেন,

জোয়া আব তেরা টাইম আগেয়া!’

বলিউড মেনস্ট্রিম ছবির থেকে বেশ অনেকটা হাটকে ছবি বানানো, জোয়া আখতারের জন্য নতুন না। তবে গালি বয় নিয়ে উন্মাদনা, আর দর্শকের দুর্দান্ত রেসপন্স বোধহয় ছবিটির ব্রাইট ফিউচার আগে থেকেই নিশ্চিত করে দিয়েছে! আর এত শক্তিশালী একটা ছবির জন্য নিজের কলিগ কাম বন্ধু দের থেকে সামান্য অ্যাপ্রিসিয়েসন পেতে কার না ভালো লাগে। তবে ঋত্বিকের এই পদক্ষেপ কী কেবল মাত্রই বন্ধুত্বপূর্ণ ব্যবহার নাকী এর পিছনে আছে অন্য কোনো উদ্দেশ্য? এক্স গার্লফ্রেন্ড কাঙ্গনা রানওয়াত যখন একদিকে মণিকর্ণিকার রিলিজের পর গোটা বলিউড ইন্ডাস্ট্রীর সঙ্গে মুখোমুখি পাঙ্গা নিয়ে নিয়েছেন ওপেনলি, তখন ঋত্বিকের এই ট্যুইট কী কাঙ্গনার বিপরীতে নিজের উপস্থিতি প্রমাণ করার জন্যই! বিষয়গুলো ভীষণ বিতর্কিত, আসলে বলিউডকে বোঝা বোধহয় সত্যিই অতটা সহজ নয়!