ক্যানসার ফাইট ব্যাক: প্রমাণ করলেন মাহীরা !

ক্যানসার মানে কী জীবনের সবটুকু শেষ হয়ে যাওয়া, নাকি লড়াই করে এগিয়ে এসে আর এক নতুন লড়াকু জীবনকে ছোঁয়া? এই প্রশ্নের উত্তর আজ থেকে দশ বছর আগেও খুঁজতে গেলে বোধহয় একটু হোঁচট খেতে হতো। কিন্তু ধারণাটা বদলে দিলেন এক ঝাঁক ক্যানসারের সঙ্গে জোর কদমে এগিয়ে চলা সেলিব্রিটি। যুবরাজ সিংহ, মনীষা কৈরালা, ইরফান খান, সোনালী বৃন্দা আর এবারে মাহীরা কশ্যপ। ক্রিকেটার যুবরাজের ক্যানসার ফাইট ব্যাক স্টোরি গোটা ভারতবর্ষের মানুষের মধ্যে সারা ফেলে দিয়েছিল, মনীষা কৈরালার ক্যানসারের সঙ্গে লড়াই করে পুনরায় বলিউডে কাম ব্যাক প্রমাণ করে দিয়েছিল ক্যানসার আর পাঁচটা অসুখের মতোই একটা অসুখ মাত্র। মনোবল না হারিয়ে লড়াই করতে পারলে জীবনের অনেকটা এগিয়ে চলার পথ পাওয়া যায়। এখনো দাঁতে দাঁত চেপে ক্রনিক এই রোগের সঙ্গে লড়ে যাচ্ছেন, অভিনেতা ইরফান খান এবং সোনালী বৃন্দা, এই ফাইটার লিস্টেই নতুন সংযোজন মাহীরা কশ্যপ। মাহীরা কশ্যপ।হঠাৎই নাম শুনলে অচেনা লাগলেও মাহীরা আসলে আমাদের সকলের ভীষণ প্রিয় অভিনেতা আয়ুষ্মান খুরানার ধর্মপত্নী! ব্রেন ক্যানসারে আক্রান্ত হন মাহীরা বেশ কিছু দিন আগে, কিন্তু ভেঙে পড়েন নি একটুও। অনেকখানি শাবাসি পাওনা থাকে আয়ুষ্মানের জন্যও। তিনি এমন দুঃসময়ে স্ত্রীকে ছেড়ে যান নি, নিজের সবটুকু ভালোবাসা নিয়ে মাহীরা আর মৃত্যুর মাঝখানে দেওয়ালের মতো দাঁড়িয়ে থেকেছেন। গত বাইশে জানুয়ারী স্ত্রীর জন্মদিনে ট্যুইটারে পোস্ট করলেন নিজের এবং সদ্য ক্যানসার নামক মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে আসা স্ত্রীর ছবি। মাহীরার চুলহীন মাথা, রোগক্লান্ত চোখের তলায় কালি, অথচ স্বামীর পাশে দাঁড়িয়ে যেন এক অপার্থিব ভরসা তার চেহারাতে! আজ সারা দেশ জুড়ে প্রেমের প্রতীক হয়ে গেছে মাহীরা আয়ুষ্মানের এই ছবি। শ্যোসাল মিডিয়াতে আম জনতার টাইমলাইন জুড়ে কেবল আয়ুষ্মান-মাহীরার এই ছবি, ছবিতে স্ত্রীকে অনুপ্রেরণা বলে উল্লেখ করেছেন আয়ুষ্মান। মাহীরার এই লড়াই যেন তার জীবনেও এক নতুন শক্তি জোগায় প্রতি মুহুর্তে! লড়াই করে এগিয়ে যাওয়া এক নতুন মাহীরাকে দেখতে পেল সারা দেশ। আবারো প্রমাণ হয়ে গেল ক্যানসার মানে এই আধুনিক প্রযুক্তির যুগে আর জীবনের শেষ নয়, লড়াই করে এগিয়ে চলা এক নতুন জীবনের খোঁজ বলাই যায়। যারা এই লড়াই করে চলেছেন প্রতিদিন, তাদের পাশে থাকা বড় প্রয়োজন, এই লড়াই-এর পথে যেন জীবন আর মৃত্যুর সীমানাতে দাঁড়িয়ে থাকা এই মানুষেরা একা না হয়ে যান..