কলকাতায় “টপ গ্রসিং” সিনেমার তকমা পেল “হামি”!

Haami Box Office Collection

গ্রীষ্মের দাবদাহের প্রভাব এখন কমবেশি সর্বত্রই। স্কুলগুলোতে পড়ে গেছে গরমের ছুটি। তবে স্কুল জীবনের দুষ্টু মিষ্টি দিনগুলোতে ফিরে যাবার জন্য এই গরমের ছুটিতে নন্দিতা রায় এবং শিবপ্রসাদ মুখার্জির  তরফ থেকে বাংলা দর্শকের জন্য উপহার ছিল “হামি”। টলি ইন্ডাস্ট্রির সাথে এই দুই পরিচালকের সাফল্যের সিঁড়ি উতরাই এর থেকে চড়াই ছিল অনেক বেশি কারন তাদের বিগত প্রায় বেশির ভাগ ছবির কনসেপ্ট এবং তা ঘিরে ছবির সফলতার মধ্যে দিয়ে মানুষের মনে একটা আলাদা জায়গা করে নিয়েছেন সেটা বলাই বাহুল্য।

প্রতিটা ছবি এসেছে এক একটি নিজস্বতা নিয়ে, এবং গল্পগুলো কোন না কোন ভাবে ছুঁয়ে গেছে মানুষের সেন্টিমেন্ট, সেই তালিকাতে বাদ যায়নি “হামি”ও। তারই প্রমান মিলছে বক্স অফিসে। “বুক মাই শো”তে কলকাতায় “হামি” নিয়ে সারচিং, বুকিং, ইউজার রেটিং- এ রয়েছে নাম্বার ওয়ানে, তাই এই সিনেমা ইতিমধ্যেই পেয়ে গেছে ২৪ ঘণ্টায় হায়েস্ট গ্রসিং সিনেমার তকমা। যে গতিতে এগোচ্ছে ভুটু ভাইজান এন্ড কোং সেটা বক্স অফিসে রীতিমত চ্যালেঞ্জের মুখে ফেলতে চলেছে প্রাক্তন, পোস্ত’র রেকর্ডকেও, শোনা যাচ্ছে ২১টি হল থেকে এখনো অবধি প্রথম সপ্তাহের কালেকশন প্রায় ৭৭ লক্ষ ২০ হাজার টাকা মত এবং পুরো বক্স অফিস কালেকশনের অঙ্কটা এখন ঘুরছে প্রায় ৩ কোটির আশেপাশে। বুক মাই শো’র রিপোর্ট অনুযায়ী কলকাতায়  প্রায় ৭৪% উপর ব্যবসা করছে এই সিনেমা, এই গতি কিন্তু একটা ব্যাপার পরিষ্কার করে দিল বাঙালিকে কিন্তু এখনো ভরদুপুরে টেনে এনে সিনেমা দেখানোর সাহস রাখেন শিবু-নন্দিতা জুটি, না হলে নন্দনের দুপুরের শো একের পর এক হাউসফুল হত না!

Haami Box Office Collection

 

Haami Review by Book My Show

এই খবর অবশ্যই অনেকটা অক্সিজেন জোগাবে বাংলা সিনেমাকে। মুক্তির পর স্বাভাবিকভাবেই “হামি” নিয়ে মানুষের উৎসাহের এক আলাদা মাত্রা ধরা পড়েছে। আমাদের শুভেচ্ছা থাকলো এই সিনেমা আগামীদিনেও অনেক মাইলস্টোন তৈরি করবে…