কট্টরপন্থী প্রেমীদের জন্য উপযুক্ত ওষুধ “মন্দবাসার গল্প”!

কট্টরপন্থী প্রেমীদের জন্য উপযুক্ত ওষুধ "মন্দবাসার গল্প"! অর্থাৎ লাইনটার সারমর্ম বুঝতে হলে অবশ্যই আপনাদের দেখতে হবে "মন্দবাসার গল্প"।

বসন্তের বাতাসে ইতিমধ্যেই ঢুকতে শুরু গেছে বৈশাখের গরম বাতাস, ২৩’র সন্ধ্যেতে শীততাপ নিয়ন্ত্রিত লেক মলের করিডরে উপচে পড়া তারকাখচিত ভিড়ে (সেটা অবশ্য সিনেমার প্রতি ভালোবাসার প্রতিচ্ছবি বলা যায়) তার আভাস পাওয়া যাচ্ছিলো বেশ ভালোভাবেই! উপলক্ষ ছিল পরিচালক তথাগত ব্যানার্জির নতুন সিনেমা “মন্দবাসার গল্প”র প্রিমিয়ার শো।

নামটা একটু অন্যরকম, ভালোবাসা অতি পরিচিত একটা শব্দ কিন্তু এর বিপরীতেও মন্দবাসার অস্তিত্ব আছে এবং সেটা সিনেমার ভাষায় কিভাবে পর্দায় ফুটে উঠেছে সেটা দেখার উৎসাহে খামতি ছিল না এক ফোঁটাও আর সিনেমা শেষে এই ব্যাপারে পরিচালক পাবেন দরাজ প্রশংসা কারন তিনি সফল হয়েছেন মন্দবাসার গল্প বলতে। এনার সাথে আরেকজন মানুষকে সমান কৃতিত্ব দিতে হয় চিত্রনাট্য লেখক সঞ্জীব ব্যানার্জি, এই ব্যানার্জি জুটির টিউনিংটা বেশ স্ট্রং সেটা বোঝা গেছে পুরো সিনেমাতেই তাই আশা থাকলো এই জুটিকে আমরা আবার দেখতে পাব একসাথে।

পরমব্রত, পাওলি, ইন্দ্রাশিস , অনিন্দ্য , কৌশিক সেন এঁরা প্রত্যেকেই অসাধারন অভিনেতা তাই এঁদের অভিনয়ের থেকে বেশী গুরুত্বপুর্ন হয় কিভাবে এই ট্যালেন্টগুলো সিনেমায় ব্যবহার হয়েছে এবং আপনারা সিনেমাটা দেখলে বুঝতে পারবেন এই চরিত্রগুলো এঁদের বাদ দিয়ে করাই যেত না, গল্পের মোচড়ের সাথে চরিত্রবিন্যাস আপনাকে বসিয়ে রাখবে সিনেমার লাস্ট সিন পর্যন্ত! এর সাথে আরেক জিনিস আপনার ভালো লাগতে বাধ্য তা হোল সিনেমার গানগুলো, অশোক ভদ্র’র সুরে প্রত্যেকটা গান আপনার মন ছুঁয়ে যেতে বাধ্য! তবে গানের বাইরে সিনেমার কিছু কিছু জায়গায় ব্যাকগ্রাউন্ড স্কোর হালকা ছিল যেটা আরও ভালো হতে পারত।

এই সিনেমায় একটা ব্যাপার লক্ষণীয় বেশীর ভাগ শট হ্যান্ডহেল্ড ক্যামেরাতে নেওয়া যেটা প্রচণ্ডভাবে সফল দর্শকদের সাথে সিনেমার গল্পের মধ্যে সংযোগস্থাপনে! এই টেকনিকের জন্য আপনার কাছে সিনেমাটা অনেক বেশী প্রাণবন্ত লাগবে! সব শেষে সিনেমার গল্পে যদি আসি একটা কথাই বলা যায়, “লেবু বেশী নিংড়োলে সেটা তেতো হয়ে যায়!” এবং এই লাইনটা যায় কট্টরপন্থী প্রেমীদের জন্যই কিন্তু কেন যায়? অর্থাৎ লাইনটার সারমর্ম বুঝতে হলে অবশ্যই আপনাদের দেখতে হবে “মন্দবাসার গল্প”। ভালোবাসা কি জিনিস সবাই জানেন, তাহলে কয়েনের ওপারের গল্পটা শুনবেন না একবার? অবশ্যই দেখে আসুন আপনার কাছের সিনেমা হলে।

REVIEW OVERVIEW
মন্দবাসার গল্প : মুভি রিভিউ