“শিবপ্রসাদ মুখার্জি-নন্দিতা রায়! এঁরা কারা? সেটা আগে বুঝতে হবে!”

নবীন চন্দ্র দাসের রসগোল্লা উদ্ভাবনের গল্প আমবাঙালি খুব একটা জানে না আবার সেখানে লুকিয়ে আছে একটা মিষ্টি প্রেমের গল্পও, এইরকম একটা বিষয় নিয়ে গত দুবছর ধরে সিনেমা বানানোর জন্য লড়াই করে যাচ্ছিলেন পরিচালক পাভেল। এই বছর আবার কাকতালীয়ভাবে রসগোল্লার ১৫০ বছর পূর্তি তাই ২০১৮’র ডিসেম্বর’কেই রিলিজের জন্য পাখির চোখ করলো টিম ‘রসগোল্লা’। প্রজেক্টের শুরু দিকে পাভেলের সাথে যোগাযোগ ছিল না শিবপ্রসাদসহ উইন্ডোজ টিমের, ঋতুপর্না সেনগুপ্ত মারফত যোগাযোগ হওয়ার পর পাভেলের পুরো কনসেপ্টটা শিবপ্রসাদকে বলার সাথে সাথেই বলে দেন, “আমি এটা নিয়ে জুয়া খেলতে রাজি!”

ব্যস ঐ একটা গ্রিন সিগন্যালে স্বপ্নপূরণের লক্ষ্যে নেমে পড়ে পাভেল। এটা এমন একটা স্ক্রিপ্ট যেটা নিয়ে নাকি জুয়া খেলা যায়, কি এমন দেখেছিলেন শিবপ্রসাদ-নন্দিতা রায়? এই ব্যাপারে পাভেলকে জিজ্ঞেস করতেই স্বভাবসিদ্ধভঙ্গিতে বলে ওঠে,

“শিবপ্রসাদ মুখার্জি-নন্দিতা রায়! এঁরা কারা? সেটা আগে বুঝতে হবে, এঁরা হচ্ছে বাংলাতে শেষ তিনবছরের সবথেকে সফলতম পরিচালক জুটি এবং অতনু রায় চৌধুরী প্রযোজক, আর এঁদের প্রোডাকশন হাউস মানে ‘উইন্ডোজ’, তো তাঁরা যখন কোন ব্যাপারে আস্থা রাখতে চাইছেন, গ্যাম্বেল করতে চাইছেন তখন সেটা তো দেখার মত হবেই!”

প্রসঙ্গত এই সিনেমার স্ক্রিপ্ট লিখেছেন পাভেল এবং লেখক স্মরণজিৎ চক্রবর্তী। নবীন চন্দ্র দাসের বাড়িতে বসে রসগোল্লাতে কামড় দিয়ে পাভেল বলতে শুরু করেন,”শিবুদা, অতনু(রায় চৌধুরী)দা’কে বলেছে এই ছবি ২০১৮’র সবথেকে বড় ব্লকব্লাস্টার হবে! দু’জন বড় মানুষ যখন এইরকম বলছেন আমি আর কি বলবো সেখানে! তবে কোথাও একটা চোরা গর্ব তো আছেই”, ইতিমধ্যেই নবীন চন্দ্র দাসের চরিত্রে কৌশিক গাঙ্গুলি ও চূর্ণী গাঙ্গুলি’র ছেলে উজান গাঙ্গুলি’কে কাস্টিং করে চমকে দিয়েছিল, শিবপ্রসাদের কথায়, “এইরকম প্রস্তাব নন্দিতাদি ছাড়া আর কেউ দিতে পারে না!”

উজান-অবন্তিকা, এই নতুন জুটি কিন্তু বেশ মিষ্টি লাগছে, আর পুরো টিমও বেশ আশাবাদী এই জুটি হিট করবেই।

পোস্টার লঞ্চের সাথে সামনে এলো নায়ক-নায়িকার লুক, তবে এখনো অনেক চমক বাকি, কথার শেষে একটা রহস্যজনক মিষ্টি হাসি হেসে পাভেল বলেন, “মিউজিকে এই সিনেমাতে এমন একটা কান্ড ঘটানো হয়েছে যেটা শুধু বাংলা সিনেমাতে কেন ভারতেও হয় নি! তারপর প্রোডাকশন ডিজাইন, কাস্টিং আর তাঁদের লুকগুলো কেমন হয়েছে সেটা নিয়ে তো চমক আছেই…ক্রমশ প্রকাশ্য”।

অর্থাৎ বেশ বোঝা যাচ্ছে সারা বছর জুড়েই বিভিন্ন সময়ে এইরকমভাবে টিম “রসগোল্লা” মিষ্টি মিষ্টি চমক দিতে থাকবেন আপনাদের আর সেটা পেতে হলে অবশ্যই চোখ রাখুন গুলগালে…