বক্সঅফিসে আমাজনের ‘দুরন্ত’ অভিযান!

গত সপ্তাহের ২২ তারিখ রিলিজ করে বাংলার সবথেকে বড় বাজেটের সিনেমা “আমাজন অভিযান”, প্রত্যেকদিন যত শো-টাইমগুলো পেরোয় একের পর এক রেকর্ড তৈরি করতে থাকে কমলেশ্বর মুখার্জি’র টিম। প্রথম দিনই বাংলা সিনেমার বক্স অফিস ম্যাজিক ফিগার ক্রস করে যায় দেবের আমাজন, মানে একদিনে ১ কোটির উপর চলে যায় বাংলাতে আমাজনের কালেকশন যা দেখে স্বাভাবিকভাবেই নতুন আশায় বুক বাঁধে পশ্চিমবঙ্গের হল মালিকরা।

২৭ তারিখ রাত অবধি রিপোর্ট কার্ড কি বলছে তা জানতে আমরা পৌঁছে গেছিলাম কলকাতা ও শহরতলির নানা হলে..  স্টার থিয়েটারের রঞ্জনবাবু’র কথায়, “দুপুরের আর সন্ধ্যের শো পরপর হাউসফুল যাচ্ছে! বাচ্চা-বড় সবাই মিলে ফ্যামিলি নিয়ে আসছে, টিকিটের লম্বা লাইন পড়ছে, আমার হলে খুব ভালো ব্যবসা দিচ্ছে আমাজন” প্রত্যেকদিন কত টাকার ব্যবসা দিচ্ছে আমাজন? জিজ্ঞেস করাতে বলেন, “গত ২৫শে ডিসেম্বর নিট ৬৩ হাজার টাকার ব্যবসা করেছে আমাজন, আশা করছি পুরো সপ্তাহ জুড়ে এই ক্রেজটা মানুষের মধ্যে চলবে” অন্যদিকে শহরের অন্যতম মাল্টিপ্লেক্স “সিনেপলিশ” স্ট্র্যাটিজিক ডিরেক্টর দেবাং সম্পতের মতে, ‘আমাজন অভিযান’ এখনো অবধি আমাদের হলে চলা সবথেকে সফল বাংলা সিনেমা, প্রথম ৬ দিনে সব শো প্রায় ৮০% ভর্তি, মানুষের রেসপন্স অসাধারণ। আমরা সবসময় আঞ্চলিক সিনেমার পাশে আছি।”

প্রসঙ্গত সিনেপলিশে এখনো অবধি গ্রস কালেকশন প্রায় ৪০ লাখের কাছে। বছরশেষে বাংলা সিনেমার মাল্টিপ্লেক্সে এই স্কোর অনেকটা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছে। ৫ বছর আগে এইভাবেই বক্সঅফিসে রাজ করেছিল “চাঁদের পাহাড়” এবার আমাজন এসে সেই রেকর্ড ভাঙছে তেমনই জানালেন নবীনা সিনেমার জ্যোতিবাবু, উচ্ছ্বসিত গলায় বললেন, “আমাদের ৫টা শো’র মধ্যে ৩টে করে হাউসফুল তো যাচ্ছেই! দিনে গড়ে ৪০০০ মানুষ দেখছেন আমাজন। নবীনাতে এর আগে কোন বাংলা সিনেমা এইরকম সাড়া ফেলে নি! চাঁদের পাহাড়ে প্রথম সপ্তাহে কালেকশন ছিল ১৫ লাখ মত এবার সেটা ছাড়িয়ে ১৮-২০ লাখে চলছে।”

ওদিকে ব্যারাকপুরে অতীন্দ্র সিনেমা হলে আবার বেশির ভাগ চলে হিন্দি ও তেলেগু সিনেমা সেখানে বাংলা সিনেমা নিয়ে অচিন্ত্যবাবুর মতে, “৮০ সালের পর বাংলা সিনেমাতে আবার এরকম হাউসফুল দেখছি। ২৫ তারিখ হাউসফুল ছিল বাকিদিনগুলোও প্রায় হাউসফুল, এখনো অবধি ৩ লাখের উপর ব্যবসা করে নিয়েছে আমাজন এবং এটা আমাদের হলে কোন বাংলা সিনেমার রেকর্ড বক্সঅফিস কালেকশন! সবথেকে মজার ব্যাপার অনেক মানুষ টাইগার দেখে আমাজন দেখে বাড়ি ফিরছেন, খুব ভালো রেসপন্স পাচ্ছি।”

গোটা বাংলার বক্সঅফিসে বন্য হাতির মতই এগোচ্ছে “আমাজন অভিযান”, এবং তাতে শুধু বাংলা থেকেই প্রথম সপ্তাহে প্রায় ৫. ৫ কোটির উপর ব্যবসা করবে একরকম নিশ্চিত। শুধু বাংলা নয়  ভারতের নানা শহরে শুরু হয়ে গেছে আমাজনের স্ক্রিনিং এবং সেখানেও খুবই ভালো রেসপন্স পাচ্ছে এই বাংলা সিনেমা, আগামী ১২ই জানুয়ারি ইউনাইটেড কিংডমে রিলিজ করেছে “আমাজন অভিযান” অর্থাৎ সব মিলিয়ে বছর শেষে আমাজন কিন্তু নতুন করে আশার আলো দেখাচ্ছে বাংলা সিনেমা’কে। এখনো অবধি ট্রেন্ড যেদিকে এগোচ্ছে সামনের দিনগুলোতেও বক্সঅফিসে আমাজনের অভিযান হবে দুরন্ত গতিতে..!