একজন বাঙালি হিসেবে এই দায়িত্বটা আপনি নেবেন তো?

বছরের শুরুর দিকে কলকাতা শহরে একটা খবর খুব চাউর হয়, নামি ইন্ডাস্ট্রিয়ালিস্ট জয় চ্যাটার্জি নিখোঁজ যাকে খুঁজতে রীতিমত নাকাল কলকাতা পুলিশ! অনেক জল্পনা কল্পনার পর অবশেষে ১২ই জানুয়ারী রিলিজ করে মনোজ মিশিগান পরিচালিত ছবি ‘আমি জয় চ্যাটার্জি’, হ্যাঁ সিনেমা হলেই মানুষ বুঝতে পারেন আসল রহস্য! ট্রেলার রিলিজ করার পর থেকেই দর্শকের মধ্যে ছবি নিয়ে একটা স্বাভাবিক উন্মাদনা দেখা যায় আর সমস্ত আগ্রহের আশানুরূপ রিটার্নই দিল “আমি জয় চ্যটার্জি”, তেমনটাই হল-ফেরত দর্শকদের মত।

ছবির গল্প থেকে শুরু করে অভিনয়, ডিরেকশন সবটাই বেশ মন জয় করে ফেলেছে সাধারণ মানুষের। ‘আমি জয় চ্যাটার্জি’ শুধু মাত্র একটা সিনেমা নয়, এটা একটা এক্সপিরিয়েন্স যা জীবন বদলে দিতে পারে”, এমনটাই বক্তব্য কলকাতার বিজিত বাবুর।

অন্যদিকে দেবাশিষবাবু বলছেন, “এই গল্প একজন স্বার্থপর মানুষকে বদলে দিতে পারে সম্পূর্ন ভালো একটা মানুষে”। একটা সিনেমা দেখে কোন মানুষের এইরকম একটা উপলব্ধি হওয়া অবশ্যই পরিচালকের কাছে একটা পরম প্রাপ্তি। এই সূত্রে এক জনৈক দর্শকের কথা অনুযায়ী, “কিছু কিছু সিনেমা যেন মনে দাগ কেটে যায়, অনেকটা ভাবায়, যদিও সিনেমার বিষয়বস্ত কঠিন কিছু নয় বরং বেশ নতুন!”

এখনও বেশ সংখ্যক মানুষ আছেন যারা প্রোডাকশন হাউসের ব্যানার বা স্টার-কাস্টে লম্বা লিস্ট দেখে ছবি দেখতে যান। তাদের উদ্দেশ্যেই শুনে নিতে পারেন শুভঙ্কর মিত্রের বক্তব্য, “আমি জয় চ্যটার্জি দেখুন, বড় ব্যানার নেই কিন্তু ভালো গল্প আছে।”

পরিচালককে দরাজ সার্টিফিকেট দিয়ে জাসমিন জানাচ্ছেন, “মনোজ মিশিগানের ছবিতে আনএক্সপেক্টেড কিছু এক্সপেক্ট করাটাই স্বাভাবিক। ছবির একটা দৃশ্যেরই অনেক সিম্বলিজম আছে।”

ছবির দুই মুখ্য চরিত্র আবির চ্যটার্জিজয়া এহসান দুজনেরই অভিনয় বেশ দাগ কেটেছে দর্শকের মনে। আবিরের অভিনয়ে মজে পরিচিতা জানাচ্ছেন, “আবারও দুর্দান্ত আবির!”। আর সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে সেই সমস্ত দর্শকের রিভিউ দেখেই এখন বাংলার বাইরে থাকা মানুষের একটাই প্রশ্ন, কবে ন্যাশানালি রিলিজ করছে “আমি জয় চ্যটার্জি”?

এবার আপনাদের জন্য রয়েছে সুখবর, কারণ খুব শীঘ্রই ন্যশানালি রিলিজ করতে চলেছে আপনাদের প্রিয় জয়ের কাহিনী। বম্বে, পুনে, দিল্লি, হায়দ্রাবাদ, ব্যাঙ্গোলর সহ বেশ কয়েকটি শহরের মাল্টিপ্লেক্সে সম্ভবত পরের সপ্তাহে আসতে চলেছে গোটা ভারতে ছড়িয়ে থাকা বাংলা সিনেপ্রেমীদের জন্য।

বাংলার মানুষরা ইতিমধ্যেই সিনেমাটি দেখে জানিয়ে দিয়েছেন তাঁদের ভালোলাগা, ভালোবাসার কথা এবার সেই দায়িত্বটা তুলে দিচ্ছে গোটা ভারতের বাঙালি দর্শকদের হাতে… আপনাদের জন্য থাকল জয় চ্যাটার্জি’র ট্রেলার আরও একবার এবং আপনিও চোখ রাখুন আপনার শহরের সিনেমাহলে কারণ আপনাদের জানা দরকার কেন নিখোঁজ হয়েছিলেন জয় চ্যাটার্জি! একজন বাঙালি হিসেবে আপনি নেবেন তো এই দায়িত্বটা? প্রযোজক শিভাঙ্গি চৌধুরী সহ পুরো জয় চ্যাটার্জি টিম অপেক্ষায় থাকবে আপনাদের মতামতের…